প্রথম রাউন্ডেই নিভে গেল দিয়া|306959|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০
প্রথম রাউন্ডেই নিভে গেল দিয়া
ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রথম রাউন্ডেই নিভে গেল দিয়া

লড়াই করে হার। আর এমনিতেই হেরে যাওয়ার মধ্যে পার্থক্য কী? হার তো হারই। এ কারণেই দিয়া সিদ্দিকীর সাহসী প্রচেষ্টায় গৌরব নেই। আছে না পারার আক্ষেপ। দিয়া সিদ্দিকীর টোকিও অলিম্পিক অধ্যায়ের সমাপ্তি প্রথম রাউন্ডে হারের যন্ত্রণা দিয়ে। স্বদেশি রোমান সানার মতো দ্বিতীয় রাউন্ডে নাম লেখাতে পারেননি তিনি। বেলারুশের কারিনা দিমিনিস্কায়ার কাছে হেরে গেছেন প্রথম রাউন্ডের শুট অফে। এর আগে পাঁচ সেটের জমজমাট লড়াই শেষ হয়েছিল ৫-৫ সেট পয়েন্টে। বেলারুশের প্রতিপক্ষ বারবার সুযোগ দিলেও সেটা কাজে লাগাতে পারেননি বলেই ম্যাচটা গড়ায় শুট অফে। যেখানে কারিনার পারফেক্ট ১০-এর জবাবে দিয়ার লক্ষ্যভেদ ৯। তাতেই নিভে গেছে দিয়া।

অথচ এলিমিনেশনের প্রথম রাউন্ড দিয়া শুরু করেছিলেন জয় দিয়ে। প্রথম সেটে ২৩-২২ পয়েন্টে জিতেছিলেন বিশ্ব আর্চারির বিশেষ আমন্ত্রণে অলিম্পিকে খেলার সুযোগ পাওয়া এই তরুণ আর্চার। দ্বিতীয় সেটে অবশ্য ২৬-২৫ পয়েন্টে হেরে যান দিয়া। তৃতীয় সেটটি ড্র হয় ২৫-২৫ পয়েন্টে। চতুর্থ সেটে ভালো সুযোগ পেয়েও দিয়া হারেন ২৭-২৫ পয়েন্টে। পঞ্চম সেট ২৭-২৫-এ জিতে টিকে ছিলেন দিয়া। তবে শুট অফে ১০-৯ হেরে বিদায় নিতে হয় তাকে। পুরো ম্যাচে দু’বার পারফেক্ট ১০-এ তীর ছুড়েছিলেন দিয়া। কারিনা ছুড়েছেন মাত্র একবার। তবে শুট অফে ঠিকই কাজের কাজটা করে ফেলেন বেলারুশের প্রতিযোগী। আর সময় মতো জ্বলতে না পেরে রোমান সানার মতোই এক পয়েন্টের আক্ষেপ সঙ্গী হয় দিয়ার।

বাংলাদেশ আর্চারি দলের জার্মান কোচ মার্টিন ফ্রেডরিখ অবশ্য এমন হারে গৌরব খুঁজে নিতে চাচ্ছেন, ‘হারার পর স্বভাবতই দিয়ার খুব মন খারাপ ছিল। তবে পরে ও বুঝতে পেরেছে ওর কাজটা ও কতটা অসাধারণভাবে করেছে। আমিও মনে করি দুর্দান্ত লড়াই করে ও হেরে গেছে। তাই ও সবার প্রশংসার দাবিদার। ওর মাত্র শুরু। তাই হতাশ হওয়ার কিছু নেই।’

দু’দিন আগে রোমান সানা দ্বিতীয় রাউন্ডে কানাডিয়ান প্রতিযোগীর বিপক্ষে শেষ তীরে এক পয়েন্ট কম পেয়ে বিদায় নিয়েছিলেন। রোমানের বিদায়ের পর সব আশা ছিল দিয়াকে ঘিরে। কিন্তু স্নায়ুর পরীক্ষায় পারলেন না দিয়া। তারপরও কোচ মনে করেন এবারের অলিম্পিক অভিজ্ঞতা তার শিষ্যদের সামনে আরও ভালো করতে অনুপ্রাণিত করবে, ‘আমি দুজনের পারফরম্যান্সেই খুশি। তারা ২৯টি দলের মধ্যে ১৬তম হয়ে মিক্সড টিমের মূল পর্বে খেলেছে। এরপর রোমান দ্বিতীয় রাউন্ডে এসে জোর লড়াই করে হেরেছে। দিয়ার খেলার মধ্যেও রোমাঞ্চ ছিল প্রতিটি মুহূর্তে। আমি মনে করি নিয়মিত অনুশীলন ও খেলার মধ্যে থাকলে ওদের আরও অনেক উন্নতি হবে।’