পানশিরে ৬০০ তালেবান হত্যার দাবি প্রতিরোধ বাহিনীর!|313859|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০
পানশিরে ৬০০ তালেবান হত্যার দাবি প্রতিরোধ বাহিনীর!
রূপান্তর ডেস্ক

পানশিরে ৬০০ তালেবান হত্যার দাবি প্রতিরোধ বাহিনীর!

আফগানিস্তানের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ পানশিরে ছয় শতাধিক তালেবান হত্যার দাবি করেছে প্রতিরোধ বাহিনী। আহমেদ মাসুদের নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল রেজিস্ট্যান্স ফ্রন্টের (এনআরএফ) বরাতে এই খবর জানিয়েছে রুশ সংবাদমাধ্যম স্পুটনিক নিউজ।

এনআরএফ মুখপাত্র ফাহিম দাস্তি শনিবার এক টুইট বার্তায় দাবি করেন, সকাল থেকে পানশিরের বিভিন্ন জেলায় প্রায় ছয়শ তালেবান নিহত হয়েছে। এক হাজারের বেশি তালেবানকে আটক করা হয়েছে বা তারাই আত্মসমর্পণ করেছে। তবে ফাহিম দাস্তি আরও দাবি করেন, আফগানিস্তানের অন্যান্য প্রদেশ থেকে সরঞ্জাম পেতে সমস্যার মুখে পড়ছে তালেবান।

এদিকে তালেবানের তরফে দাবি করা হয়েছে, পানশিরে অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলেও ল্যান্ডমাইনের কারণে গতি ধীর হয়ে পড়েছে। মাইন অপসারণ এবং হামলা দুটোই একসঙ্গে চলছে বলে দাবি করেছে তারা।

ফাহিম দাস্তি দাবি করেছেন, এক হাজারের বেশি তালেবান যোদ্ধা পিছু হটার সময় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। এরপর তাদেরকে বন্দি করা হয়। এছাড়া অনেকে নিহতও হয়েছে। প্রদেশটির পারিয়ান জেলাটি তালেবানের কাছ থেকে মুক্ত করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, ফ্রন্টের নেতা আহমদ মাসুদ এসব বন্দির সামনে নিজেদের নীতি-অবস্থান তুলে ধরে ভাষণ দেবেন। ফ্রন্টের নেতা ও স্বঘোষিত তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ পানশির উপত্যকায় তালেবানের অভিযানে সৃষ্ট ভয়াবহ মানবিক সংকটে জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

তালেবানের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত এসব দাবির বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। তালেবানের মুখপাত্র বেলাল কারিমি বলেছেন, পানশিরের প্রধান শহর বারাজাক এবং রাখা জেলা ছাড়া পুরো প্রদেশ এখন তাদের নিয়ন্ত্রণে।

পানশিরে সংঘাত বন্ধে আফগানিস্তানের বিভিন্ন দলের নেতারা অভিযান বন্ধ করে তালেবানকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন। সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই এক বার্তায় পানশিরে হামলা বন্ধ করে আলোচনার বসার জন্য তালেবানের প্রতি আহ্বান জানান।

গত ১৫ আগস্ট তালেবানের হাতে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পতন হয়। কাবুল দখলের পর তিন সপ্তাহের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও পানশির উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেনি তালেবান। উপত্যকাটি বিদ্রোহী ন্যাশনাল রেজিস্ট্যান্স ফ্রন্টের যোদ্ধাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অবশ্য গত শুক্রবার পানশির উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার দাবি করেছিল তালেবান। কিন্তু গতকালও পানশিরে বিরোধীদের সঙ্গে তালেবানের লড়াই চলছিল।