সাদেক বাচ্চু আমাকে বাবা ছাড়া ডাকতেন না: সাইমন সাদিক|315497|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৭:৪৮
সাদেক বাচ্চু আমাকে বাবা ছাড়া ডাকতেন না: সাইমন সাদিক
নিজস্ব প্রতিবেদক

সাদেক বাচ্চু আমাকে বাবা ছাড়া ডাকতেন না: সাইমন সাদিক

বহুমাত্রিক অভিনেতা সাদেক বাচ্চুর মৃত্যুর এক বছর আজ। ২০২০ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর রাজধানীর একটি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। আগে থেকেই নানান জটিলতায় ভুগছিলেন সাদেক বাচ্চু। আর মহামারির বছরে এর সঙ্গে যুক্ত হয় করোনা। টিভি ও সিনেমায় অভিনয়ের স্বাক্ষর রেখে গেছেন সাদেক। নেতিবাচক চরিত্রে তৈরি করেছিলেন নিজস্ব ধরন। মঞ্চ-বেতারেও কাজ করেছিলেন। সহশিল্পীদের প্রিয়মুখ ছিলেন এ অভিনেতা। তার মৃত্যুতে অনেক সহশিল্পী তাকে নিয়ে স্মৃতিচারণে জানিয়েছিলেন হৃদয়স্পর্শী নানান কথা। চিত্রনায়ক সাইমন জানিয়েছেন, সাদেক বাচ্চুর সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল বাবা-চাচার মতন।

সাদেক বাচ্চুর সঙ্গে নিজের সম্পর্কের কথা তুলে ধরে  সাইমন সাদিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেন, ‘আপনার সাথে কাজ করার সৌভাগ্য হয়নি! হয়নি পথ চলা! কিন্তু যোগাযোগ ছিল সব সময়। বাবা ছাড়া ডাকতেন না। আমার আব্বু আর আমার ছোট কাকা দুই নাম জুড়ে আপনি। (সাদেক-বাচ্চু)সম্পর্কটাও ছিল বাবা, চাচার মতন। ফোনে কথা হতো, দেখা হতো। মনে হতো কত আপন আপনার। শাসন করতেন, আদর করতেন, ভালোবাসতেন। আরও কতো কি........’’

সাদেক বাচ্চুর জন্য প্রার্থনা করে সাইমন লিখেন, ‘ওপারে ভালো থাকবেন বাবা। মহান আল্লাহ্ আপনাকে অনেক শান্তিতে রাখবেন, কারণ আপনি অসম্ভব ভালো মানুষ। ভালো মানুষের যা যা গুন থাকা দরকার সব আপনার মধ্যে ছিলো। আপনার এই চলে যাওয়া আমাদের কাঁদিয়েছে, কাঁদছে আমাদের চলচ্চিত্র! শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা রইলো।’

উল্লেখ্য, চলচ্চিত্রে সাদেক বাচ্চু হিসেবে পরিচিত মাহবুব আহমেদ ১৯৫৫ সালের ১ জানুয়ারি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। পাঁচ দশকের ক্যারিয়ারে মঞ্চ, বেতার, টেলিভিশন ও সিনেমায় ছিল তার পদচারণ। নব্বইয়ের দশকে পরিচালক এহতেশামের ‘চাঁদনী’ ছবিতে অভিনয় করে পরিচিতি পান তিনি। রেডিও বা টেলিভিশনের আগে তিনি অভিনয় শুরু করেন মঞ্চে। তাঁর নাট্যদলের নাম মতিঝিল থিয়েটার। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি দলটির সভাপতি ছিলেন।

মহিলা সমিতির মঞ্চে এক নাটকে সাদেক বাচ্চুর অভিনয় দেখে তাকে বিটিভিতে ডেকে নেন প্রযোজক আবদুল্লাহ ইউসুফ ইমাম। ১৯৭৪ সালে বিটিভিতে তিনি অভিনয় করেন ‘প্রথম অঙ্গীকার’ নাটকে। তার অভিনীত নাটকের সংখ্যা হাজারের বেশি। প্রথম অভিনীত সিনেমা শহীদুল আমিন পরিচালিত ‘রামের সুমতি’।

এই অভিনেতার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘জজ ব্যারিস্টার পুলিশ কমিশনার’, ‘জীবননদীর তীরে’, ‘জোর করে ভালোবাসা হয় না’, ‘তোমার মাঝে আমি’, ‘ঢাকা টু বোম্বে’, ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’, ‘এক জবান’, ‘আমার স্বপ্ন আমার সংসার’, ‘মন বসে না পড়ার টেবিলে’, ‘বধূবরণ’, ‘ময়দান’, ‘আমার প্রাণের স্বামী’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘প্রিয়জন’, ‘সুজন সখী’ প্রভৃতি।