জোড়া গোল এলিটার|315592|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০
জোড়া গোল এলিটার
ক্রীড়া প্রতিবেদক

জোড়া গোল এলিটার

বাংলাদেশের নাগরিকত্ব নিয়ে নাইজেরীয় বংশোদ্ভূত এলিটা কিংসলে অপেক্ষায় আছেন লাল-সবুজ জার্সিতে দেশের প্রতিনিধিত্ব করার। বাফুফেও জোর চেষ্টা চালাচ্ছে আসন্ন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের আগেই ফিফার কাছ থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার। একই কারণে গত মাসে মালদ্বীপে এএফসি ক্লাবের প্লে-অফে বসুন্ধরা কিংসের সঙ্গী হয়েও খেলতে পারেননি। সময়ের আলোচিত ফুটবলার মাঠে নিজের যোগ্যতার জানান দিয়ে রাখলেন ভালোভাবেই। ফিফার অনুমতি পেলেই বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলতে যে তিনি প্রস্তুত তার প্রমাণ দিলেন জোড়া গোলে বিপিএলে কিংসের হয়ে গতকাল খেলতে নেমে। তার ম্যাজিকে প্রায় ৩২ দিন পর লিগ ম্যাচ খেলতে নেমে সাইফ স্পোর্টিংকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে আগেই শিরোপা নিশ্চিত করা বসুন্ধরা কিংস।

সর্বশেষ আরামবাগকে ১-০ গোলে হারানো কিংস মাঝখানে মালদ্বীপে এএফসি কাপ খেলতে যাওয়ায় বিপিএলের তিন ম্যাচ বাকি ছিল তাদের। তারই একটি ম্যাচ হলো কাল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে। প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকার পর দুর্দান্ত খেলে দ্বিতীয়ার্ধে সাইফের গোল দরজা খুলেছে কিংস। ৫৪ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান প্লে-মেকার রবসন রবিনহোর অসাধারণ থ্রু ধরে বক্সে ঢুকে সাইফ কিপার পাপ্পু হোসেনকে পরাস্ত করেন সাফের জন্য ৩৪ সদস্যের প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া কিংসলে। তিনি দ্বিতীয় গোলটি করেন ৬৪ মিনিটে। এবার জোনাথনের লং বল ধরে বাঁ পায়ের গড়ানো শটে লক্ষ্যভেদ করেন। ৮০ মিনিটে কিংসকে আরও এগিয়ে নেন রবিনহো। সাইফ ডিফেন্ডার রিয়াদুলের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে রবিনহোকে স্কয়ার পাস দেন জোনাথন। তাতে আলতো টোকায় ২০তম গোল করে শেখ জামালের ওমর জোবের সঙ্গে গোলদাতাদের শীর্ষে উঠলেন রবিনহো। ২২ ম্যাচে ২০তম জয়ে কিংসের সংগ্রহ এখন ৬১ পয়েন্ট। ১৭ সেপ্টেম্বর তারা মুখোমুখি হবে শেখ রাসেলের। সাইফ চতুর্থতে থেকেই লিগ শেষ করল ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে।

ম্যাচ শেষে স্বভাবতই কিংসলের কাছে জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার বিষয় নিয়ে প্রশ্ন গিয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে এ নিয়ে সরাসরি কিছু বলতে চাননি তিনি। শুধু বলেছেন, ‘বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমি কৃতজ্ঞ, তারা আমাকে পাসপোর্ট দিয়েছে। যা আমাকে স্থানীয় খেলোয়াড় হিসেবে ঘরোয়া ফুটবলে খেলার সুযোগ দিয়েছে। আমি আগেও বলেছি জাতীয় দলে খেলার জন্য আমি প্রস্তুত আছি। কিন্তু বিষয়টা আমার হাতে নেই। আমি তেমন কিছু জানিও না। বিষয়টি সম্পূর্ণ নির্ভর করছে বাফুফের ওপর। তারা যদি ফিফার কাছ থেকে আমাকে খেলানোর অনুমতি এনে দেয় তখন জাতীয় দলের কোচ ভেবে দেখবেন আমি প্রস্তুত কিনা। এখন আমি আমার ক্লাবের হয়েই খেলছি। ফিটনেস ভালো না হলে আজ আমি খেলতে পারতাম না। আমি আমার পারফরম্যান্সে খুশি। জাতীয় দলের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানলেই আমি এ নিয়ে কথা বলতে পারব।’