বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণের নির্দেশ হাইকোর্টের|315620|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০
নোয়াখালীর নিঝুম দ্বীপ
বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণের নির্দেশ হাইকোর্টের
নিজস্ব প্রতিবেদক

বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণের নির্দেশ হাইকোর্টের

নোয়াখালী জেলার হাতিয়ায় নিঝুম দ্বীপের সংরক্ষিত বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণের নির্দেশ দিয়েছে উচ্চ আদালত। পরিবেশ ও বন সচিব, প্রধান বন সংরক্ষক এবং জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে আগামী ৬ মাসের মধ্যে সীমানা নির্ধারণ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে হাইকোর্টের আদেশে।

নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচন স্থগিত ও এর বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণের নির্দেশনা চেয়ে করা একটি রিট আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া এবং মো. কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ আদেশসহ রুল দেয়। রুলে নিঝুম দ্বীপ সংরক্ষিত বনাঞ্চলের সীমানা নির্ধারণে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না সেটি জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট। চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির পল্লব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম গোলাম সারোয়ার। গত ১২ সেপ্টেম্বর হাতিয়ার বাসিন্দা মানবাধিকার কর্মী ও ফটোসাংবাদিক রফিক উদ্দিন এনায়েতের পক্ষে জনস্বার্থে এ রিট মামলাটি করা হয়।

রিটকারীর আইনজীবীর ভাষ্যমতে, আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। নিঝুম দ্বীপ চল্লিশের দশকে নোয়াখালী জেলার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে জেগে ওঠে। ১৯৭৪ সালে বন বিভাগ এই চরটিতে বনায়ন শুরু করে। পরবর্তীকালে চরটির প্রকৃতি, জীববৈচিত্র্য বিবেচনায় সরকার এটিকে জাতীয় উদ্যান হিসেবে ঘোষণা করে। এর ধারাবাহিকতায় ২০০১ সালে বন আইন, ১৯২৭-এর ২০ ধারা অনুযায়ী সরকার নিঝুম দ্বীপকে সংরক্ষিত বন হিসেবে ঘোষণা করে। ফলে আইনানুযায়ী সংরক্ষিত বন নিঝুম দ্বীপে জনসাধারণের অবাধ প্রবেশ, কাঠামো নির্মাণ নিষিদ্ধ। কিন্তু ২০০৮ সালে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় নিঝুম দ্বীপের সংরক্ষিত বন নিয়ে ১১ নম্বর নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ গঠন করে। এটি সম্পূর্ণ বেআইনি।

ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব বলেন, এর সুযোগে স্থানীয় অসাধু ভূমিখেকোরা নিঝুম দ্বীপের সংরক্ষিত বনের জমি অবৈধভাবে দখল করে বিভিন্ন ধরনের কাঠামো নির্মাণ করছে। ফলে নিঝুম দ্বীপের প্রাকৃতিক পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য আজ হুমকির মুখে। এর আগে নিঝুম দ্বীপ নিয়ে রিট মামলার পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এটি রক্ষায় একাধিক রুল এবং নির্দেশনা প্রদান করে। কিন্তু নির্বাচন কমিশন ১১ নম্বর নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের সীমানা নির্ধারণ বিষয়টি নিষ্পত্তি না করেই ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে। এর প্রতিকার চেয়ে হাইকোর্টে এ রিট আবেদনটি করা হয়।