ফিরছে স্টেজ শো’র উন্মাদনা|317244|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০
ফিরছে স্টেজ শো’র উন্মাদনা
সুদীপ্ত

ফিরছে স্টেজ শো’র উন্মাদনা

আবারও চাঙ্গা হয়ে উঠেছে সংগীতাঙ্গন। নতুন নতুন প্লেব্যাক, নতুন নতুন মিউজিক ভিডিওর পাশাপাশি চাঙ্গা হয়ে উঠছে স্টেজ শোও। দীর্ঘ লকডাউন শেষে অনেক আগেই সবকিছু স্বাভাবিক হলেও স্টেজ শো স্বাভাবিক হতে বেশ সময় লাগছে। সংগীত শিল্পী ও সংগীত পরিচালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল ধীরে ধীরে স্টেজ শো’র অবস্থা স্বাভাবিক হচ্ছে। আগের চেয়ে স্টেজ শো’র পরিমাণ বাড়লেও পুরোদমে শুরু হয়নি। তবে একটা চাঙ্গা চাঙ্গা ভাব বিরাজ করছে এটা ঠিক। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সামিনা চৌধুরী দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘ধীরে ধীরে স্টেজ শো’র সংখ্যা বাড়ছে। শো’র প্রস্তাব পাচ্ছি বেশ। কয়েক দিন আগেই একটা শো করলাম, আবার ২৬ তারিখে আরেকটা শো কনফার্ম করেছি। ২৬ তারিখেরটা স্টেজ শো হলেও আমি অংশ নেব অনলাইনে।’

এদিকে সতর্কতা বজায় রেখে স্টেজ শো করা যাচ্ছে কিনা জানতে চাইলে সামিনা বলেন, ‘যে কয়টা স্টেজ শো করেছি সবগুলোতেই দেখেছি সবাই মাস্ক পরে সতর্কতা অবলম্বন করেই অংশ নিচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘অনেক দিন পর আবারও স্টেজ শো চাঙ্গা হচ্ছে দেখে খুব ভালো লাগছে। সংগীতাঙ্গনের মানুষদের জন্য এটা খুবই ভালো খবর।’

কণ্ঠশিল্পী আঁখি আলমগীর দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘কেবলমাত্র স্টেজ শোগুলো শুরু হলো। বেশ কিছু শো করেছি। সামনে আরও স্টেজ শো আছে। তবে সবগুলোই করপোরেট শো। ওপেন এয়ার শো এখনো করিনি। তবে শিগগিরই করা হয়ে যাবে। আর যে শোগুলো করেছি সবগুলোতেই সতর্কতা মেনেই সব হয়েছে।’ কণ্ঠশিল্পী বেলাল খান বলেন, ‘দেশের স্টেজ শো এখনো পুরোপুরি শুরু হয়নি। বিচ্ছিন্নভাবে হয়তো দুই-একটা হচ্ছে। বিভিন্ন এজেন্সি এবং দেশের বাইরে থেকে অনেকেই যোগাযোগ করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার স্টেজে নিয়মিত হব এটাই প্রত্যাশা করছি। তবে ভালো লাগছে আবারও স্টেজ শো চালু হচ্ছে জেনে।’ সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসেন বলেন, স্টেজ শো চালু হলেও আমি আপাতত স্টেজ শো’তে অংশ নিইনি। ব্যবসা এবং সামাজিক কিছু কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকায় এখনো অংশ নিতে পারিনি। তবে আবারও স্টেজ শো চাঙ্গা হচ্ছে এটা আমাদের জন্য ভালো খবর। সংগীত পরিচালক এস কে সমীর বলেন, ‘আমার জানামতে স্টেজ শো হচ্ছে খুব বেশি তা নয়, তবে শুরু হয়েছে। মোটামুটি হচ্ছে। আমার অনেক বন্ধুবান্ধব অংশও নিচ্ছেন। আমি এখনো অংশ নিইনি। তবে আমার ধারণা, ডিসেম্বর থেকে খুব ভালোভাবে স্টেজ শো চাঙ্গা হবে।’ সেরাকণ্ঠখ্যাত কণ্ঠশিল্পী সোমনুর মনির কোনাল বলেন, ‘অল্প অল্প শুরু হলেও এখনো পুরোদমে স্টেজ শো শুরু হয়নি। আমার ২৮ তারিখে দুইটা শো করার কথা চলছে একটা ঢাকায়, একটা ময়মনসিংহে। ৩০ তারিখে ঢাকায় হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কোনোটাই এখনো কনফার্ম করিনি। তবে আবারও চাঙ্গা হয়ে উঠছে সবকিছু। এতেই আলহামদুলিল্লাহ।’

পাওয়ার ভয়েসখ্যাত কণ্ঠশিল্পী জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়া বলেন, ‘ধীরে ধীরে তার স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ততা বাড়ছে। আগামী ২৮ তারিখে একটা স্টেজ শো আছে। আবার ৩০ তারিখে লাইভ আছে। আগামী মাসের ৩ তারিখেও লাইভ প্রোগ্রাম আছে। সব মিলিয়ে শিগগিরই স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ব।’

কণ্ঠশিল্পী জিনিয়া জাফরিন লুইপা বলেন, ‘লকডাউনের পর ধীরে ধীরে স্টেজ শো’র পরিমাণ বাড়ছে। আমি কয়েকদিন আগেও শো করেছি। সপ্তাহে আমার দুটো করে শো হচ্ছে। স্টেজ শো চালু হওয়ায় মিউজিশিয়ানরা আবারও ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন। তাদের আর্থিক সমস্যারও সমাধান হচ্ছে।’ অনেকে স্টেজ শো করলেও সাজিয়া সুলতানা পুতুল এখনো শো করা শুরু করেননি। তিনি বলেন, ‘স্টেজ শো এখনো পুরোদমে শুরু হয়নি। তাই স্টেজ শো’তে আমার তেমন ব্যস্ততা নেই। এখন পুরো ব্যস্ততা নিজের স্টুডিওতে। সামনে বেশ কিছু গান আসবে। এখন সেই কাজগুলোই করছি।’