গাড়ি দিয়ে পিষে কৃষক হত্যা: মহারাষ্ট্রে ১২ ঘণ্টার বনধ শুরু|320905|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ অক্টোবর, ২০২১ ১৫:৪৩
গাড়ি দিয়ে পিষে কৃষক হত্যা: মহারাষ্ট্রে ১২ ঘণ্টার বনধ শুরু
অনলাইন ডেস্ক

গাড়ি দিয়ে পিষে কৃষক হত্যা: মহারাষ্ট্রে ১২ ঘণ্টার বনধ শুরু

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র মনু। ছবি: সংগৃহিত।

গাড়ি দিয়ে পিষে কৃষক হত্যার ঘটনায় ভারতের মহারাষ্ট্রে ১২ ঘণ্টার বনধ শুরু হয়েছে। কৃষক সংগঠনের ডাকা সোমবারের এই বনধকে সমর্থন করছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন তিন দল শিবসেনা, কংগ্রেস ও এনসিপি। তবে বিজেপি এই বনধের বিরোধিতা করছে।

এনসিপি নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী নবাব মালবিক জানিয়েছেন, অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ছাড়া রাজ্যে বাকি সবকিছু বন্ধ থাকবে। ডয়েচে ভেলে।

শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত জানিয়েছেন, তারা পুরোদমে বনধকে সফল করতে মাঠে নামবেন। ক্ষমতাসীন তিন দলই বনধ সমর্থন করছে এবং তারা বনধ সফল করবে বলে তিনি জানিয়েছেন। ব্যবসায়ীদের একটি অ্যাসোসিয়েশন আগে বনধের বিরোধিত করেছিল। কিন্তু তারাও জানিয়ে দিয়েছে, তারা দোকানপাট বন্ধ রাখবে।

অন্যদিকে, বিজেপি হুমকি দিয়ে জানিয়েছে, জোর করে কোনো দোকানপাট বন্ধ করা যাবে না। তারা বনধ ব্যর্থ করতে রাস্তায় নামবে বলে জানিয়েছে। দলের নেতা নীতীশ রানে বলেছেন, জোর করে দোকান বন্ধ করতে গেলে বিজেপি কর্মকর্তারাও সক্রিয় হবেন।

এদিকে, গাড়ি দিয়ে পিষে কৃষক হত্যার ঘটনায় ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র মনুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উত্তর প্রদেশের লখিমপুরের ওই ঘটনার পাঁচ দিন পর ১৩ ঘণ্টা ধরে জেরা করার পর শনিবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশের আইজি উপেন্দ্র আগরওয়াল জানিয়েছেন, আশিস পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করেনি এবং জেরার জবাবে সে যে উত্তর দিয়েছে তাতেও পুলিশ সন্তুষ্ট নয়। আশিসের বিরুদ্ধে অভিযোগ, গাড়ি চাপা দিয়ে সে চারজন কৃষককে হত্যা করেছে। আশিস ও তারা বাবা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্র দাবি করছেন, তারা ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নন।

তবে বিরোধীদের অভিযোগ, সুপ্রিম কোর্টের চাপেই আশিসকে গ্রেপ্তার করতে বাধ্য হলো উত্তর প্রদেশ পুলিশ। কারণ, সুপ্রিম কোর্ট প্রশ্ন করেছিল, কতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়ে হয়েছে? সর্বোচ্চ আদালত জানায়, তারা পুলিশের তদন্ত নিয়ে একেবারেই সন্তুষ্ট নয়। কেন আশিস মিশ্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি, সে প্রশ্নও উঠেছিল।