বসে কাজ করার স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে যা করবেন|321451|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৪ অক্টোবর, ২০২১ ১০:২৩
বসে কাজ করার স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে যা করবেন
অনলাইন ডেস্ক

বসে কাজ করার স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে যা করবেন

প্রতীকী ছবি

যারা অফিসে বা কাজে দীর্ঘ সময় বসে কাটান তাদের বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভোগার কথা প্রায়ই শোনা যায়। ৮-৯ ঘণ্টা বসে থাকার ফলে এই বিপত্তি।

আয়ারল্যান্ড ও যুক্তরাজ্যে দুই হাজার অফিস কর্মীদের ওপর পরিচালিত গবেষণা নতুন কিছু তথ্য উঠে এসেছে।

এতে দেখা যায়, প্রায় অর্ধেক (৪৫ শতাংশ) নারী এবং পাঁচ ভাগের দুই ভাগ (৩৫ শতাংশ) পুরুষ অফিসে ৩০ মিনিট সময় দাঁড়িয়ে কাটান। অথচ বেশিরভাগ লোকই দৈনিক গড়ে ৯ ঘণ্টা অফিসে বসে কাটান।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বিপুলসংখ্যক লোক ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগ ও কোলন ক্যান্সারের মতো বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে থাকেন। এমনকি ব্যাকপেইন, রক্ত জমাট বাঁধা, হাড়ের ভঙ্গুরতা, হতাশা ও স্মৃতিভ্রংশ রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

করণীয়

কর্মজীবনে পরিবর্তন আনা খুব একটা সহজ নয়। তবে এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে কিছু কাজ করতে পারেন।

প্রতি ৩০ মিনিট পর পর কাজে বিরতি দিতে হবে বা উঠে হাঁটাহাঁটি করতে হবে। অনেকে চেয়ারে বসার পর টয়লেটে পর্যন্ত যাওয়ার কথা ভুলে যান। নিয়মিত বিরতি নিয়ে অফিসের মধ্যে ঘোরাঘুরি করতে হবে।

মোবাইলে কথা বলার সময় উঠে দাঁড়ান। এক ঘণ্টা বসে থাকার চেয়ে কেবল দাঁড়ানোতেই বাড়তি ৫০ ক্যালরি ক্ষয় হয়।

অফিসে ওঠার সময় লিফটের পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন। বিজ্ঞানীদের মতে, ৩০ মিনিট হালকা কাজ ৩ মিনিট ভারী কাজ করার সমান। দুপুরে ডেস্কে না খেয়ে খাবার রুমে খাওয়া উচিত। বাইরে হাঁটার ফলে হালকা ব্যায়ামও হবে। এতে খাবার তাড়াতাড়ি হজম হবে এবং শরীরের ক্যালরিও দ্রুত ক্ষয় হয়।

দৈনিক তিন ঘণ্টা হালকা হাঁটাচলার (যেমন- চেয়ার থেকে উঠে দাঁড়ানো) ফলে বছরে ৮ পাউন্ড চর্বি পুড়ে। ১০ ম্যারাথন দৌড়ে যতটুকু চর্বি পুড়ে তার সমান। গবেষকদের মতে, এতে কাজের গতিশীলতাও বাড়ে।

সহকর্মীর ডেস্কে যান। একই অফিসে সহকর্মীদের সঙ্গে ফোন বা মেইলে যোগাযোগের চেয়ে সরাসরি তার রুমে যেতে পারেন।