সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝি যেভাবে এড়াবেন|322018|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৭ অক্টোবর, ২০২১ ১১:৩৬
সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝি যেভাবে এড়াবেন
অনলাইন ডেস্ক

সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝি যেভাবে এড়াবেন

স্বভাবগতভাবেই একজন ব্যক্তি অন্যজনের থেকে আলাদা। সবার চিন্তা-চেতনাও আলাদা হয়। সামাজিকতার খাতিরেই দুজন মানুষ একই বন্ধনে বাঁধা পড়ে একসঙ্গে পথচলা শুরু করেন। এই সম্পর্কে থাকাকালীন দুজনের মধ্যে মত, চিন্তাধারা নাও মিলতে পারে। এর ফলে অনেক সময় ভুল বোঝাবুঝিরও সৃষ্টি হতে পারে।

যেকোনো সম্পর্কেই ভুল বোঝাবুঝি হলে সেটা জিইয়ে না রাখাই উত্তম। নিজেকেই ভুল চিহ্নিত করে তার সমাধান করতে হবে। অনেকে প্রিয়জনের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি হলে কী করবেন তা বুঝে উঠতে পারেন না। ভুল বোঝাবুঝি দূর করার কিছু টিপস-

অনুমান যাচাই করা

অনুমানের ওপর ভিত্তি করে কোনো বিষয়ে জোর দিয়ে কথা না বলাই ভালো। এতে ভুল বোঝাবুঝি হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়। অনুমিত বিষয়টি অসত্যও হতে পারে। তাই বিষয়টি নিয়ে সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলে পরিষ্কার হওয়াই ভালো।

মতের অমিল হলে না আগানো

মানুষ দুজন, তাই মতামতও দুটোই আসবে। দুজনকেই বুঝতে হবে আপনার সঙ্গী স্বতন্ত্র মানুষ, তাই তার ধারণাটাও আলাদা। তার মানে এই নয় যে সঙ্গীর মতামত বা সিদ্ধান্তটা ভুল। আপনাকে বিষয়টি সঙ্গীর দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করতে হবে। মানুষ যখন কোনো সিদ্ধান্ত নিতে যায় তখন সেখানে আবেগ চলে আসে। এ কারণে তাৎক্ষণিক কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় দুজনের আবেগকে প্রাধান্য দিয়ে আলোচনা করতে হবে। পরবর্তীতে যেন আর কোনো ভুল বোঝাবুঝি না হয় সেজন্য সম্ভব হলে বিষয়টি নিয়ে আর আলোচনা করবেন না।

সঙ্গীর সক্ষমতা দিক নিয়ে ভাবা

একসঙ্গে পথচলার ফলে একে অন্যের ভালো-মন্দের ও সক্ষমতা-দুর্বলতার দিকগুলো জানা হয়ে যায়। সঙ্গীর ভালো গুণগুলো সব সময় মাথায় রাখতে হবে। সবসময় সঙ্গীর ভুলত্রুটি ধরিয়ে দেওয়ার ফলে ভুল বোঝাবুঝি হয়। এ কারণে সঙ্গীর দুর্বল দিকগুলোর সমালোচনা না করে তার ভালো গুণগুলোর প্রশংসা করতে হবে।

আলোচনার জন্য এগিয়ে যাওয়া

ভুল বোঝাবুঝি হলে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির সমাধান করতে হবে। ভুলটা তার, সমাধানের জন্য আমি কেন আগ বাড়িয়ে যাবো- এ ধরনের অহমিকা ত্যাগ করুন। দুজনই চুপ থাকলে বিষয়টি আরও ঘোলাটে হবে। এ কারণে নিজেই বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য এগিয়ে গিয়ে সঙ্গীকে অবাক করে দিন। কোনো রকম দোষারোপ না করে ঠান্ডা মাথায় আলোচনা করুন।