এক ঝলকে|322316|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০
এক ঝলকে

এক ঝলকে

কর্মবিরতি নিচ্ছেন রায়ান রেনল্ডস

হলিউডের ব্যস্ততম তারকাদের একজন রায়ান রেনল্ডস। এ বছর তার দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে, সফলতাও পেয়েছে। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘রেড নোটিস’। হাতে আছে ‘ডেডপুল থ্রি’সহ বেশ কয়েকটি ছবির কাজ। এর মধ্যেই অভিনেতা জানালেন, অভিনয় থেকে কিছুদিন বিরতি নেবেন তিনি। রায়ান রেনল্ডস বর্তমানে কমেডি-মিউজিক্যাল ছবি ‘অ্যা ক্রিসমাস ক্যারল’-এর শ্যুটিং করছেন। শেষ করেছেন ‘স্পিরিটেড’-এর কাজ। তবে কাজের চাপে হাঁপিয়ে উঠেছেন অভিনেতা।

সম্প্রতি এক পোস্টে রায়ান রেনল্ডস লিখেছেন, ‘স্পিরিটেড’-এর কাজ শেষ করলাম। এরকম কঠিন কাজের জন্য তিন বছর আগেও প্রস্তুত ছিলাম কিনা জানি না। গান, নাচ, স্যান্ডবক্সে খেলা, সব মিলিয়ে যেন স্বপ্ন পূরণ হলো আমার। এটি অক্টাভিয়া স্পেন্সারের সঙ্গে আমার দ্বিতীয় ছবি। অভিনেতা আরও লিখেছেন, কিছুটা বিরতি নেওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়। শিল্পী ও নির্মাতাদের মিস করব।

রায়ান রেনল্ডস কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন জানার পর থেকে ‘ডেডপুল থ্রি’ ভক্তরা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। অভিনেতা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন আগামী বছর শুরু হবে ছবির শ্যুটিং। রায়ান রেনল্ডস কতদিনের বিরতিতে যাচ্ছেন তা না জানানোর কারণে এই সংশয় তৈরি হয়েছে।

মুক্তি পাচ্ছে মিথিলার বলিউড ছবি

বলিউডে মুক্তি পাচ্ছে বাংলাদেশি মডেল তানজিয়া জামান মিথিলার ‘রোহিঙ্গা’ সিনেমাটি। জানা গেছে, হায়দার খান পরিচালিত এই সিনেমা ১৫ নভেম্বর বিশ্বব্যাপী অ্যাপল টিভিতে মুক্তি পাবে। এদিকে মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত হওয়ায় উচ্ছ্বসিত মিথিলা। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘খুবই আনন্দের সংবাদ এটি আমার জন্য। তবে আমার মনটা কিছুটা খারাপ, সিনেমাটা হলে মুক্তি পাচ্ছে না। করোনার কারণে সবকিছু এলোমেলো করে দিল। এটি ভারতের সব রাজ্যের সিনেমা হলে মুক্তি দেওয়ার প্ল্যান ছিল। তারপরও ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে জেনে ভালো লাগছে। অপেক্ষা করছি দর্শকের প্রতিক্রিয়ার।’

এ সময় তিনি নিজেকে ভাগ্যবান উল্লেখ করে বলেন, ‘আমি অনেক লাকি যে ক্যারিয়ারের প্রথম সিনেমাটি বলিউডের মতো বড় ইন্ডাস্ট্রিতে করতে পেরেছি। এখানে রোহিঙ্গাদের গল্প উঠে এসেছে। আমি রোহিঙ্গা মেয়ে হুসনে আরার চরিত্রে অভিনয় করেছি।’

‘রোহিঙ্গা’ ছবিটি থান্ডার ড্রাগন প্রোডাকশনের ব্যানারে নির্মিত। মানালি ও ত্রিপুরাসহ ভারতের বেশ কয়েকটি স্থানে সিনেমাটির কাজ হয়েছে। রোহিঙ্গা ও হিন্দি, দুই ভাষাতে এর কাজ হয়েছে। এ জন্য রোহিঙ্গা ভাষাও রপ্ত করতে হয়েছে মিথিলাকে। ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০’ হিসেবে বিজয়ী হওয়ার পর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় ভিসা জটিলতাসহ বেশ কিছু কারণে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেওয়ার আগে শেষ মুহূর্তে মূল প্রতিযোগিতা থেকে মডেল তানজিয়া জামান মিথিলার নাম প্রত্যাহার করে নেয় মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ কর্র্তৃপক্ষ।