গুচ্ছ পদ্ধতির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলছে|323246|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৪ অক্টোবর, ২০২১ ১৩:১২
গুচ্ছ পদ্ধতির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলছে
শাবিপ্রবি প্রতিনিধি

গুচ্ছ পদ্ধতির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলছে

ফাইল ছবি

গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বি' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

রবিবার দুপুর ১২টা থেকে সারাদেশে একযোগে ২২টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন ৬৭ হাজার ১১৭ জন পরীক্ষার্থী।

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছেন ১৯৬৫ জন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭৭৯৩ জন, শেরে-ই বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২১৭২ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০৯৭ জন, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২০০ জন,  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৩১৫ জন, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫১১৮ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল  সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০০০ জন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫৯২০ জন, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭০২৫ জন, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৬০৩ জন,  নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৬৮২জন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৫০৫ জন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬৪৯৭  জন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩২৭৬ জন, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭৭৮ জন, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৬০০ জন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৮০ জন,  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২২৬৯ জন, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২২৯৩ জন, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩২৯ জন এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭০০ জন ভর্তি–ইচ্ছুক পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে।

আজকের অনুষ্ঠিতব্য 'বি' ইউনিটে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তার মধ্যে বাংলায় ৪০, ইংরেজিতে ৩৫ ও আইসিটিতে ২৫ নম্বরের মান বণ্টনে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য কাটা যাবে শূন্য দশমিক ২৫ নম্বর।

গুচ্ছ ভর্তিপরীক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের শতভাগ প্রস্তুত পরীক্ষা নেওয়ার জন্য।

পূর্বেই যথাযথ নিরাপত্তার সাথে সকল পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র, উত্তরপত্র ও উপস্থিতি তালিকা পাঠিয়ে দিয়েছি।

এতে পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, আর্মড ফোর্সেস পুলিশ সহায়তা করছে। সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশ্নপত্রের ট্র্যাংকে জিপিএস ট্র্যাকিং সিস্টেম লাগানো হয়েছে, যাতে প্রশ্নপত্র নিরাপদ থাকে।