বাবা নৌকা প্রতীক না-পাওয়ায় ছাত্রলীগ নেতা ভাঙচুর চালালেন আ. লীগ অফিসে|329351|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০২১ ২০:৩৪
বাবা নৌকা প্রতীক না-পাওয়ায় ছাত্রলীগ নেতা ভাঙচুর চালালেন আ. লীগ অফিসে
নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা

বাবা নৌকা প্রতীক না-পাওয়ায় ছাত্রলীগ নেতা ভাঙচুর চালালেন আ. লীগ অফিসে

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিসহ স্থানীয় এমপি এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির ছবি অবমাননাসহ দলীয় কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলার দুলালপুর  ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, দুলালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলামের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা বাইজিদ সরকারসহ তার সহযোগীরা এ হামলা চালায়।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ৪র্থ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুলালপুর ইউনিয়ন থেকে নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী ছিল ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও সদ্য গঠন করা দুলালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মনিরুল ইসলাম। গণভবন থেকে গত মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর রাতে ঘোষিত আওয়ামী লীগের মনোনীত নামের তালিকায় মনিরুল ইসলামের নাম না-থাকায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে মনিরুল ইসলামের ছেলে বাইজিদ।

আরো জানা গেছে, পরে বুধবার ২৪ নভেম্বর সকালে দুলালপুর পশ্চিম বাজারে অবস্থিত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে বাইজিদ ও তার সহযোগীরা হামলা চালায়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ছবি এবং স্থানীয় সাংসদ অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির ছবি অবমাননা করে দলীয় কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ করে হামলাকারীরা।

এ সময় হামলাকারী বাইজিদ সরকার নিজেই হামলার ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে প্রচার করে।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অভিযুক্তদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে ব্রাহ্মণপাড়া আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রুপম মজুমদার বলেন, কেউ যদি আওয়ামী লীগ অফিস ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর করে। তাহলে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় ও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।