এমপিকে ১৪ সালে ‘অটোপাস’ আর ১৮-তে ‘রাতের ভোটের’ বললেন চেয়ারম্যান|329543|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ নভেম্বর, ২০২১ ১৮:০০
এমপিকে ১৪ সালে ‘অটোপাস’ আর ১৮-তে ‘রাতের ভোটের’ বললেন চেয়ারম্যান
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

এমপিকে ১৪ সালে ‘অটোপাস’ আর ১৮-তে ‘রাতের ভোটের’ বললেন চেয়ারম্যান

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ও চন্ডীপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূঁইয়া বর্তমান এমপিকে রাতের ভোটের এমপি বলে মন্তব্য করেছেন।

মঙ্গলবার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের বাঁশহাটিতে বর্ধিত সভায় তিনি এমপি তুহিনের বিষয়ে এমন মন্তব্য করেন। তার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

সেখানে তিনি বলেছেন, ‘বর্তমান এমপি আনোয়ারুল আবেদিন খান তুহিন দুইবারের এমপি হলেও আপনারা কখনো তাকে ভোট দিতে পারেননি। তিনি বলেছেন, আমাকে নাকি ভোট চুরি করে পাস করিয়েছেন। আপনাকে কে ভোট দিয়েছিল ২০১৪ সালে, ২০১৮ সালে। আমরা রাতের অন্ধকারে ভোট দিয়ে পাস করিয়েছিলাম। চোরের মায়ের আবার বড় গলা।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘২০১৪ সালে বিনা ভোটে অটোপাস আর ২০১৮ সালে রাতের ভোটে এমপি হয়েছেন। তাই এমপি তুহিনকে আর মনোনয়ন দেওয়া হবে না।’

এই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক এমপি মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুস সালাম। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের সাবেক দুই চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চৌধুরী স্বপন ও সিরাজুল ইসলাম ভূইয়াসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা।

এমপিকে নিয়ে আ. লীগ নেতার এমন মন্তব্যে স্থানীয় নেতা কর্মীদের মাঝে আলোচনা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, নান্দাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ জুয়েল সংবাদমাধ্যমে প্রেস নোটে জানান, নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়া কেউ সরকারদলীয় একজন সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে এ ধরনের কথা বলা পুরো দলকে প্রশ্নবিদ্ধ করে। এ নিয়ে এলাকার সাধারণ জনগণের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। তিনি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূইয়ার দ্রুত শাস্তি দাবি করেন।

এ বিষয়ে এমপি আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিনের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে চন্ডীপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূঁইয়াকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।