দীপ্ত টিভির ধারাবাহিক নাটক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ এর ট্রিপল সেঞ্চুরি|329698|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২১ ১০:৪০
দীপ্ত টিভির ধারাবাহিক নাটক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ এর ট্রিপল সেঞ্চুরি
নিজস্ব প্রতিবেদক

দীপ্ত টিভির ধারাবাহিক নাটক ‘মাশরাফি জুনিয়র’ এর ট্রিপল সেঞ্চুরি

টেস্টে বা ওয়ানডেতে নয়, ‘মাশরাফি জুনিয়র’ ট্রিপল সেঞ্চুরি করলো ধারাবাহিক নাটকে। গত ২৮ নভেম্বর ২০২০ তারিখে শুরু হয়ে নাটকটি প্রতিদিন প্রচারিত হচ্ছে দীপ্ত টিভিতে রাত ৮:৩০ মিনিটে। আগামী ২৭ তারিখ শনিবার পূর্ণ করবে তার ৩০০তম পর্বটি ।

দেশে বিদেশে, সব বয়স ও শ্রেণিপেশার মানুষের কাছে গত এক বছরে সমানভাবে জনপ্রিয় হওয়া নাটকটি বলে যাচ্ছে ‘সব বাধা ডিঙিয়ে এক অসম্ভব স্বপ্নছোঁয়ার গল্প’। টিভি ও সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে নাটকের প্রতিটি পর্ব দেখতে অপেক্ষায় থাকেন দর্শকেরা। সেইসব দর্শকদের ভালোবাসা আর গল্পে নতুন নতুন চমক নিয়ে এবার ৩০০তম পর্ব প্রচারের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে ‘মাশরাফি জুনিয়র’।

নাটকটি শুরু হয়েছিল প্রত্যন্ত এক গ্রামের দুই ভাইবোন মণি আর মন্ডার ভালোবাসার গল্প দিয়ে। ক্রিকেট পাগল মন্ডার খেলা দেখে মণির মাঝেও জন্মে ক্রিকেট আর ক্রিকেটার মাশরাফির জন্য আবেগ, ভালোবাসা। তবে গ্রামের চেয়ারম্যানের সাথে দ্বন্দ্বে ন্যায়ের পথে থাকতে যেয়ে হারিয়ে যেতে হয় মন্ডাকে। ভাইকে খুঁজতে শহরে এসে সাদিক খানের বাড়িতে মণি পায় বন্ধু আয়ান আর মমতাময়ী মা রুনার দেখা। মেয়ে হয়েও ছেলের বেশ ধরে মণি ক্রিকেট খেলে সুনাম কুড়ায় ‘মাশরাফি জুনিয়র’ নামে। অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে ভাইকে খুঁজে পেয়েও আবার হারিয়ে ফেলে মণি। ভাইকে দেয়া কথা রাখতে অ্যাকাডেমিতে খেলার সুযোগ পাওয়া মণি এবার খেলে নাম কুড়াতে চায় দেশ থেকে বিদেশে। মণি কি ভাইকে দেয়া কথা রাখতে পারবে? ক্রিকেট নিয়ে তার যে স্বপ্নের শুরু, সেটা কি পূরণ হবে? এমন অনেক প্রশ্নের উত্তর মিলবে নাটকের সামনের পর্বগুলোতে।

আহমেদ খান হীরকের গল্পে ‘মাশরাফি জুনিয়র’ এর চিত্রনাট্য করেছেন আসফিদুল হক আর সংলাপ লিখেছেন মো. মারুফ হাসান। সাজ্জাদ সুমনের পরিচালনায় এই ধারাবাহিকের  অভিনয় দিয়ে এর মাঝেই দর্শকদের মন জয় করেছে সাফানা নমনি, অনিন্দ, হামিম, তৃষিতা। নাটকে আরও অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, গোলাম ফরিদা ছন্দা, ডা. এজাজ, ফজলুর রহমান বাবু, নাজনীন হাসান চুমকি, রুনা খান, লুৎফর রহমান জর্জ, আইরিন আফরোজ, মাইমুনা ফেরদৌস মম সহ আরও অনেকে। লাইন প্রোডিউসার হিসেবে আছেন কিশোর খন্দকার। প্রতিদিন টিভিতে প্রচারের পরপরই নাটকটি দেখা যাচ্ছে দীপ্ত টিভির ইউটিউব ও ফেসবুকে।