ঢাকা শহরে ৫ বছরে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় নিহত ১২|329767|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২১ ২২:২৮
ঢাকা শহরে ৫ বছরে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় নিহত ১২
অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা শহরে ৫ বছরে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় নিহত ১২

ঢাকায় বুধ ও বৃহস্পতিবার সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় দুজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে বুধবার সকাল ১১টার দিকে নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসনাত গুলিস্তান থেকে রাস্তা পার হওয়ার সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটির (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়িচাপায় নিহত হন। 

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে পান্থপথ এলাকায় আহসান কবীর খানের মৃত্যু হয় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) একটি ময়লার গাড়ির ধাক্কায়। 

সব মিলিয়ে রাজধানীতে গত পাঁচ বছরে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িচাপায় অন্তত ১২ জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

একটি সংবাদ সংস্থার খবরে বলা হয়, চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি দয়াগঞ্জে ডিএনসিসির ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নিহত হন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার টেলিফোন অপারেটর খালিদ হোসেন। ১৬ এপ্রিল মোস্তফা নামে একজন রিকশাচালক নিহত হন ময়লার গাড়ির ধাক্কায়। ওই সময় উত্তেজিত লোকজন ওই ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেয়। ২ মে শাহজাহানপুরে ময়লার ট্রাকের চাপায় নিহত হন স্বপন আহমেদ নামে একজন ব্যাংক কর্মচারী। 

জানা গেছে, ডিএসসিসির ভারী যানবাহন আছে ৩১৭টি। বিপরীতে তাদের চালক আছেন ৮৬ জন। এই ৮৬ জনের বেশিরভাগই তাদের নামে বরাদ্দ থাকা গাড়িটি অন্য লোক দিয়ে চালায়। আর যারা এসব ভারী যানবাহন চালান তাদের অনেকেরই নেই বৈধ লাইসেন্স।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিএসসিসির এক কর্মকর্তা বলেন, নিয়ম অনুযায়ী ময়লা-আবর্জনা পরিবহনের কাজে নিয়োজিত সব যানবাহন ও চালকের দায়িত্ব বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে থাকার কথা। কিন্তু অদৃশ্য এক কারণে তা করপোরেশনের পরিবহন শাখায় রয়েছে। এখানে পরিবহনের চালকরা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে আঁতাত করে জ্বালানির অর্থ হাতিয়ে নেন। এই সিন্ডিকেটের কারণে চালকরা বেপরোয়া।

জানা গেছে, ডিএনসিসির মোট গাড়ি ৩৩০। ময়লা বহনের জন্য গাড়ি আছে ১৩৭টি। ময়লার গাড়ির চালক আছেন ২৫ জন। 

পর্যাপ্ত চালক থাকলেও পরিচ্ছন্নতাকর্মী কেন গাড়িটি চালাচ্ছিল জানতে চাইলে ডিএসসিসির পরিবহন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক বিপুল চন্দ্র বলেন, ওই গাড়ির ড্রাইভার দীর্ঘদিন ধরে প্যারালাইজড হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। সে কারণেই পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে গাড়িটি চালানোর দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। তবে কে দিয়েছে, কীভাবে দিয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। আমি তদন্ত কমিটির প্রধান।

ময়লার গাড়ির দিনের বেলা সড়কে চলার কথা নয়, নিষেধাজ্ঞা থাকলেও দিনের বেলা কেন ময়লার গাড়ি বের হয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ওটা সাধারণ নিয়ম। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ থেকে একটি গাড়ির একটি শিডিউল হয়। তাতে দিনে ১০টি গাড়ি আছে। এই ১০ ময়লার গাড়ির দিনের বেলা কাজ করার আলাদা অনুমতি আছে।

ডিএনসিসির পরিবহন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মিজানুর রহমান বলেন, আগে কী নিয়ম ছিল আমি জানি না। তবে দুর্ঘটনার পর সিদ্ধান্ত হয়েছে ময়লা অপসারণের কাজ সকাল ৭টার মধ্যে শেষ করতে হবে, দিনে করা যাবে না।

তিনি জানান, তাদের মোট ৩৩০টি গাড়ির জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত ৭৩ জন চালক আছেন। তাদের মনিটরিং ব্যবস্থা অনেক বেশি শক্ত।