ভারতে শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ১২ সাংসদ বরখাস্ত|330359|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৯ নভেম্বর, ২০২১ ১৮:০১
ভারতে শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ১২ সাংসদ বরখাস্ত
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারতে শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ১২ সাংসদ বরখাস্ত

ভারতে শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে রাজ্যসভার ১২ সাংসদকে শীতকালীন অধিবেশন থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত হওয়া সাংসদদের মধ্যে রয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের দোলা সেন ও শান্তা ছেত্রী। এ ছাড়া সিপিএমের এলমারাম করিম, কংগ্রেসের ফুলোদেবী নেতাম, ছায়া ভার্মা, আর বোরা, রাজামণি প্যাটেল, সৈয়দ নাসির হুসেন, অখিলেশ প্রসাদ সিং, সিপিআইয়ের বিনয় বিশ্বম, শিবসেনার প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী এবং অনিল দেশাই।

সোমবার শীতকালীন অধিবেশনের প্রথমদিন এই ঘটনা ঘটে। পরে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সংসদ মুলতবি করা হয়েছে। খবর: হিন্দুস্তান টাইমস

প্রতিবেদন অনুযায়ী, সংসদের অধিবেশন শুরুর আগেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী শান্তিপূর্ণভাবে অধিবেশন চালানোর আহ্বান করেন। তবে প্রধানমন্ত্রীর সেই আহ্বানকে তোয়াক্কা না করেই বিরোধীরা প্রথম দিন থেকেই সংসদে হট্টগোল শুরু করেন। এদিন ভারতের লোকসভাতে বিরোধীদের হট্টগোলের মাঝেই পাস হয় ‘কৃষি আইন প্রত্যাহার’ বিল। এরপর রাজ্যসভাতেও একই পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরে এই সংসদে হট্টগোলের জেরে ১২ জন সাংসদকে বরখাস্ত করা হয়।

এদিকে বরখাস্ত হওয়া সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী দাবি করেন, তাদের পক্ষের যুক্তি না শুনেই একতরফাভাবে সাংসদদের বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘জেলা আদালত থেকে সুপ্রিম কোর্ট, সব জায়গাতেই একজন আসামির শুনানি হয়। তাদের জন্য আইনজীবীও সরবরাহ করা হয়। কখনো সরকারি কর্মকর্তাদের আসামিদের শুনতে পাঠানো হয়। এখানে আমাদের বক্তব্যও শোনা হয়নি।’

বরখাস্ত হওয়া কংগ্রেসের সাংসদ ছায়া ভর্মা বলেন, ‘এই বরখাস্তের নির্দেশ অন্যায্য। সেখানে অন্য দলের সদস্যরা হট্টগোল করলেও চেয়ারম্যান আমাকে সাময়িক বরখাস্ত করলেন। নৃশংস সংখ্যাগরিষ্ঠতা ভোগ করার কারণে প্রধানমন্ত্রী মোদী তার ইচ্ছামতো এই সব করছেন।’