কোয়ারেন্টাইনে স্বস্তি নিউজিল্যান্ডে|330995|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০
কোয়ারেন্টাইনে স্বস্তি নিউজিল্যান্ডে
ক্রীড়া প্রতিবেদক

কোয়ারেন্টাইনে স্বস্তি নিউজিল্যান্ডে

এক বছরে দ্বিতীয়বার নিউজিল্যান্ড সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এ বছর ফেব্রুয়ারি-মার্চের সফরটিতে ছিল তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি। এবার দুই টেস্টের সিরিজ। পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট শেষের (৮ ডিসেম্বর) পরদিনই সকালে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা হবে দল। ১ জানুয়ারি থেকে সিরিজ শুরুর আগে যথারীতি আইসোলেশন-কোয়ারেন্টাইন প্রক্রিয়া পার করতে হবে ক্রিকেটারদের। তবে এবার সুখবর হলো গতবারের মতো কোয়ারেন্টাইন করতে হবে না। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন নেমে এসেছে ৭ দিনে। আর দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলারও সুযোগ পাচ্ছেন ক্রিকেটাররা।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শুরু থেকেই অতি সতর্ক নিউজিল্যান্ড। গতবার বাংলাদেশ দলের সবাইকে পূর্ণ ৭ দিনের রুম কোয়ারেন্টাইন করতে হয়েছিল। এরপর করোনা নেগেটিভ হওয়া সাপেক্ষে ৩-৪ জনের গ্রুপ হয়ে অনুশীলন করেন। অবশেষে ১৪ দিন পর পূর্ণ বন্দিদশা কাটে ক্রিকেটারদের। এবার সেই অবস্থা থাকছে না। কোয়ারেন্টাইনপর্ব কম হওয়ার খবর ক্রিকেটারদের জন্য স্বস্তির। এছাড়া দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগও পাচ্ছে বাংলাদেশ। এর একটি আবার নিউজিল্যান্ড একাদশের সঙ্গে, যা টেস্ট সিরিজের আগে ক্রিকেটারদের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সুখবর। গতকাল বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘আমাদের শেষ নিউজিল্যান্ড সিরিজে যে প্রটোকল ছিল, সেটা থেকেও কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। তিন থেকে চার দিনের রুম কোয়ারেন্টাইন করতে হবে। এর ফলে আমাদের সামনে বাড়তি কিছু সুযোগ এসেছে। আমাদের দল দুটি অনুশীলন ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে। দুটি দুদিনের অনুশীলন ম্যাচ হবে। একটা নিজেদের মধ্যে, আরেকটা নিউজিল্যান্ড একাদশের সঙ্গে। দুটা অনুশীলন ম্যাচ খেলার পর বাংলাদেশ দল সরাসরি টেস্ট খেলবে।’ পাকিস্তানের সঙ্গে শেষ টেস্টের দলে থাকা ২০ জন থেকেই নিউজিল্যান্ড সিরিজের দল ঠিক করবেন নির্বাচকরা। তবে দলে অনভিজ্ঞতার বিচারে বিকল্প ভাবনা ঘুরছে। ২০১৯ সালে ভারতে শেষ টেস্ট খেলা ইমরুল কায়েস নিউজিল্যান্ড সিরিজে ফিরতে পারেন। সাদমান ইসলামের সঙ্গে স্পেশালিস্ট এবং অভিজ্ঞ ওপেনারের অভাবে ইমরুলের কপাল খুলতে পারে।