কমনওয়েলথ গেমসে ২০ জন|331363|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০
কমনওয়েলথ গেমসে ২০ জন
ক্রীড়া প্রতিবেদক

কমনওয়েলথ গেমসে ২০ জন

বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে আনন্দ ভ্রমণের (!) সুযোগ খুব বেশি ক্রীড়াবিদ ও কর্তা পাবেন না। আয়োজক কমিটি থেকেই এবার নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে। আগামী বছর হতে যাওয়া আসরে বাংলাদেশ থেকে ২০ জনের বেশি ক্রীড়াবিদ অংশ নিতে পারবে না বিশে^র তৃতীয় বৃহত্তম মাল্টি ডিসিপ্লিন আসরে। বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের এক্ষেত্রে তেমন কিছু করার নেই। নিয়ম মেনে তারা প্রস্তুত করেছে ২০ জনের প্রাথমিক তালিকা। তবে এই তালিকায় কোনো অ্যাথলেটের নাম নেই। কেবলমাত্র কোন খেলায় কতজন যেতে পারবেন সেটাই নির্ধারণ করা হয়েছে। বিওএ’র এক অফিশিয়াল পরিচয় গোপন রেখে জানিয়েছেন, ‘এবার কমনওয়েলথ গেমসে বাংলাদেশ থেকে ২০ জন অ্যাথলেট পাঠানোর বাধ্যবাধকতার কথা জানিয়েছে আয়োজকরা। সুতরাং এটা মেনে চলা ছাড়া আমাদের উপায় নেই। তবে বাকি ডিসিপ্লিনগুলোতে অংশ নিতে হলে বাছাইপর্বের বাধা টপকাতে হবে। অলিম্পিক গেমসের মতোই সবাইকে কোয়ালিফাইং স্কোর ও সেটমার্ক দেওয়া হবে। সেটা পূরণ করতে পারলেই কেবল খেলার সুযোগ থাকবে।’ যার মানে দাঁড়াচ্ছে কমনওয়েলথ গেমসে খেলতে যেতে হলে ২০ জনের বাইরে থাকাদের আন্তর্জাতিক মিটে ভালো করেই পেতে হবে টিকিট।

এবারের কমনওয়েলথ গেমসে এমনিতেই বাংলাদেশের পদক পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। এই আসর বাংলাদেশ নিয়মিত পদক পায় শুটিং স্পোর্টস ইভেন্টে। এবার বার্মিংহ্যাম এই ডিসিপ্লিনটাই রাখছে না নিরাপত্তার স্বার্থে। সাঁতার, বক্সিং, অ্যাথলেটিক্স, ব্যাডমিন্টন, জিমন্যাস্টিকস, কুস্তি, ভারোত্তোলন ও সাইক্লিং থেকেই কেবল সরাসরি খেলার সুযোগ পাবেন ২০ অ্যাথলেট।

বার্মিংহ্যামে যুক্ত করা হয়েছে ক্রিকেট। তবে সেটা ছেলেদের ইভেন্ট নয়। মেয়েরাই কেবল খেলার সুযোগ পাবেন। বিশ^কাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করা বাংলাদেশের মহিলা ক্রিকেট অবশ্য এই আসরে অংশ নিতে পারছে না। কারণ গত ১ এপ্রিল পর্যন্ত র‌্যাংকিংয়ে সেরা ছয় দলকে নিয়ে হবে কমনওয়েলথ গেমসের মহিলা ক্রিকেট। বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ের সেই শর্তপূরণ করতে পারেনি বলে খেলার সুযোগ হারিয়েছে।

 বিওএ’র সেই অফিশিয়াল বলেন, ‘মহিলা ক্রিকেটে দল সংখ্যা বাড়ানোর জন্য একটা কোয়ালিফাইং রাউন্ড আয়োজন করার পরিকল্পনা আছে আয়োজকদের। সেটা হতে পারে আগামী জানুয়ারিতে। সেটা উতরাতে পারলে আমাদের দল কমনওয়েলথ খেলার সুযোগ পাবে।’

আগামী বছর ২৮ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট বার্মিংহ্যামে হবে এই আসর। ২০১৮ সালে গোল্ড কোস্ট গেমসে বাংলাদেশ দু’টি সিলভার জিতেছিল শুটারদের হাত ধরে। এবার শুটিং বাদ পড়ায় এবং মহিলা ক্রিকেট দলের সরাসরি খেলার সুযোগ হারানোয় পদক পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।