হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে ভারতের সেনা সর্বাধিনায়কসহ নিহত ১৩|332112|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৮:৫০
হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে ভারতের সেনা সর্বাধিনায়কসহ নিহত ১৩
অনলাইন ডেস্ক

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে ভারতের সেনা সর্বাধিনায়কসহ নিহত ১৩

তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধান বিপিন রাওয়াত নিহত হয়েছেন। তাঁর স্ত্রীসহ আরও ১১ জন এ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন।

ভারতীয় বিমান বাহিনী (আইএএফ) টুইট করেছে, ‘গভীর দুঃখের সঙ্গে এখন নিশ্চিত করা হচ্ছে যে, জেনারেল বিপিন রাওয়াত, মিসেস মাধুলিকা রাওয়াত এবং আরও ১১ জন ওই দুর্ভাগ্যজনক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন’।

তামিলনাড়ুর কুন্নুরে জঙ্গলের মধ্যে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় এর ১৪ আরোহীর ১৩ জনই মারা গেলেন।

আর যিনি বেঁচে আছেন, তাঁর অবস্থা গুরুতর। তাঁর শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে। ওয়েলিংটনের সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ব্যক্তি হলেন গ্রুপ ক্যাপ্টেন বরুণ সিং।

ওই হেলিকপ্টারে ভারতীয় সেনাবাহিনীর চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বা প্রতিরক্ষা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াতসহ ১৪ জন সেনা সদস্য ছিলেন। বিপিন রাওয়াতের স্ত্রীও ওই হেলিকপ্টারেই ছিলেন। জেনারেল বিপিন রাওয়াত ছাড়া আরও ৪ জন উচ্চপদস্থ সেনা কর্মকর্তাও ছিলেন ওই হেলিকপ্টারে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বিধ্বস্ত ওই হেলিকপ্টারে ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াতসহ ১৪ জন ছিলেন। তাদের মধ্যে বিপিন রাওয়াতের স্ত্রী, প্রতিরক্ষা সহকারী, নিরাপত্তা সহকারী এবং ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলটরা ছিলেন।

জেনারেল বিপিন ওয়েলিংটনের ডিফেন্স সার্ভিসেস স্টাফ কলেজে ফ্যাকাল্টি এবং ছাত্রদের উদ্দেশে ভাষণ দিতে যাচ্ছিলেন।

সাবেক সেনা প্রধান এবং বর্তমান প্রতিরক্ষা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াতকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি সহ ১৩ জন মারা গেছেন বলে নিশ্চিত করেছে ভারত সরকার। তার স্ত্রীও হাসপাতালে মারা গেছেন।

বুধবার বেলা ১২টা ৪০ মিনিটে তামিলনাড়ুর কুন্নুরের জঙ্গলে বিধ্বস্ত হয় ভারতীয় সেনাবাহিনীর এমআই-১৭ হেলিকপ্টার। রাশিয়ার তৈরি এমআই-১৭ ভি ৫ হেলিকপ্টারটি নীলগিরি পাহাড়ের ওয়েলিংটনের উদ্দেশ্যে কোয়েম্বাটুরের সুলুর বিমান বাহিনী ঘাঁটি থেকে উড্ডয়নের পরপরই এই দুর্ঘটনা ঘটে। হেলিকপ্টারটি ওয়েলিংটনে অবতরণের মাত্র ১০ মিনিট আগে বিধ্বস্ত হয়। গন্তব্যে প্রায় পৌঁছেই গিয়েছিল হেলিকপ্টারটি। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হল না।

জেনারেল রাওয়াত (৬৩) ২০১৯ সালে ভারতের প্রথম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন। সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনী- তিনটি বাহিনীকে একটি কেন্দ্রীয় কমাণ্ডের অধীনে নিয়ে আসার লক্ষ্যে এই পদটি সৃষ্টি করা হয়েছিল।

চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ হলেন চিফ অফ স্টাফ কমিটির স্থায়ী চেয়ারম্যান এবং রাজনৈতিক নেতৃত্বকে নিরপেক্ষ পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর প্রধান সামরিক উপদেষ্টা হিসেবেও কাজ করতেন তিনি।

প্রাক্তন সেনাপ্রধান জেনারেল রাওয়াতকে নতুন সৃষ্ট সামরিক বিষয়ক বিভাগের প্রধান হিসেবেও নিযুক্ত করা হয়েছিল।

দূর্ঘটনার পর জেনারেল রাওয়াতের দিল্লির বাড়িতে গিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনায় অনেক সাবেক সেনাপ্রধান শোক প্রকাশ করেছেন। তারা এমআই-১৭ ডাবল ইঞ্জিনের হেলিকপ্টারটিকে ভিভিআইপি ফ্লাইটের জন্য ব্যবহৃত একটি অত্যন্ত স্থিতিশীল বিমান হিসাবে বর্ণনা করেছেন। তারপরও এমন ভয়াবহ দূর্ঘটনা ঘটল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন হেলিকপ্টারটি মাটিতে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই এতে বিশাল বিস্ফোরণ ঘটে এবং আগুন ধরে যায়। আগুনে ১৪ আরোহীর সকলের দেহই মারাত্মকভাবে পুড়ে যায়।