ভারতের স্বপ্নভঙ্গ, সিরিজ দ.আফ্রিকার|339227|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
ভারতের স্বপ্নভঙ্গ, সিরিজ দ.আফ্রিকার

ভারতের স্বপ্নভঙ্গ, সিরিজ দ.আফ্রিকার

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে ইতিহাস গড়ে গত বছরের শুরুটা করে ভারত। অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবারের মতো টেস্ট সিরিজ জেতে তারা। এক বছর পর ঠিক একই সময়ে আরেকটি ইতিহাস হাতছানি দিচ্ছিল ভারতকে। সেঞ্চুরিয়নে ৩ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি জিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ জেতা প্রথম ভারতীয় দলপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখছিলেন কোহলি। কিন্তু পরের দুই টেস্টে বিধিবাম, উল্টো হেরে বসে স্বপ্নের জলাঞ্জলি ভারত ও কোহলির। অস্ট্রেলিয়ায় সফল হলেও রংধনুর দেশে সিরিজ জয়ের স্বপ্নটা অধরাই রইল। কেপটাউনের শেষ টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করল। টেস্টে তৃতীয় দিন শেষেই জয়ের সুবাস পাচ্ছিল প্রোটিয়ারা। জয়ের জন্য চতুর্থ দিনে তাদের দরকার ছিল ১১১ রান, হাতে ছিল ৮ উইকেট। ১১৩ বলে ৮২ রান করে ম্যাচ জেতান কেগান পিটারসেন। ম্যাচ ও সিরিজসেরা হন তিনি।  প্রথম টেস্ট জেতার পর ভারতের সিরিজ হারের এটি চতুর্থ ঘটনা।

সমালোচিত কোহলিরা

বিরাট কোহলি মাঠে সব সময়ই আগ্রাসী। তবে কেপটাউন টেস্টের তৃতীয় দিনে যা করলেন কোহলিরা তাতে সমালোচনা শুনতে হচ্ছে ভারতীয় দলকে। দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসে ডিআরএস-কে প্রশ্নবিদ্ধ করেন কোহলি, লোকেশ রাহুলরা। স্টাম্পমাইকে দৃষ্টিকটুভাবে ফুটিয়ে তোলেন তাদের অসন্তুষ্টি। এ ঘটনায় ভারতের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর বলেছেন, ‘কোহলি খুবই অপরিণত। ভারতীয় একজন অধিনায়ক এরকম কথা বলছেন স্টাম্পমাইকে, এর চেয়ে বাজে কিছু আর হতে পারে না। এসব কাজ করে কখনই তরুণদের জন্য আদর্শ হতে পারবে না।’ সাবেক ক্রিকেটার সঞ্জয় মাঞ্জরেকার ও শন পোলক  কড়া সমালোচনা করেন কোহলিদের।

দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসের ২১তম ওভারে অশ্বিনের বলে ডিন এলগারকে এলবিডব্লিউ দেন আম্পায়ার ইরাসমাস। রিভিউয়ে দেখা যায়, বল লাইনে পিচ করে এলগারের হাঁটুতে লাগে। কিন্তু বল ট্র্যাকিংয়ের শেষ ধাপে দেখা যায়, বলটি চলে যেত স্টাম্পের ওপর দিয়ে। লোকেশ রাহুল বলেন, ‘১১ জনের বিপক্ষে যেন খেলছে গোটা দেশ।’ অধিনায়ক কোহলি স্টাম্পমাইকের কাছে মুখ নিয়ে বলেন, ‘তোমাদের দলের দিকে মনোযোগ দাও বল উজ্জ্বল করার সময়। শুধু প্রতিপক্ষের দিকে খেয়াল রাখলে চলবে না। সবসময় শুধু অন্য লোকদের ধরার চেষ্টা!’