নারী সবজি বিক্রেতাকে বেধড়ক মারধর করলেন চিকিৎসক!|339508|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১১:৩৯
নারী সবজি বিক্রেতাকে বেধড়ক মারধর করলেন চিকিৎসক!
অনলাইন ডেস্ক

নারী সবজি বিক্রেতাকে বেধড়ক মারধর করলেন চিকিৎসক!

পার্কিং নিয়ে সামান্য বিবাদ। আর তার জেরে এক নারী সবজি বিক্রেতার উপর অমানবিক অত্যাচার চালালেন একজন চিকিৎসক। মারধরে যোগ দেয় আরও বেশ কয়েকজন যুবকও। ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের ঘটনার ভিডিও এখন নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। এমন অমানবিক অত্যাচার দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটিজেনরা।

ভানওয়ারকুয়ান এলাকায় ভ্যানে করে সবজি বিক্রি করেন দ্বারকা বাঈ এবং তাঁর ছেলে রাজু। গত বৃহস্পতিবারও ঘুরে ঘুরে সবজি বিক্রিই করছিলেন দুজনে। তাঁদের ভ্যানের সামনেই এক চিকিৎসক গাড়ি পার্ক করেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ওই সবজি বিক্রেতা মা ও ছেলে চিকিৎসককে গাড়িটি সরাতে বলেন। তাঁরা দাবি জানান, অন্যত্র গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য। আর এতেই ক্ষেপে যান ওই চিকিৎসক।

সবজি বিক্রেতা মা ও ছেলের অনুরোধে কান দিতে নারাজ চিকিৎসক। এরপর চিকিৎসক গাড়ি পার্কিং নিয়ে তাঁদের সঙ্গে তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়েন। কথা কাটাকাটির মাঝে দুজনকে মারধর করতেও শুরু করেন চিকিৎসক। পাশেই ছিল তাঁর ক্লিনিক। সেখান থেকে বেশ কয়েকজন যুবককে ডাকেন চিকিৎসক। তারাও ওই দুজনকে মারধরে শামিল হয়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে অত্যাচার। পরে যদিও স্থানীয়দের তৎপরতায় মারধরকারীদের হাত থেকে রেহাই পান সবজি বিক্রেতা মা ও ছেলে।

অত্যাচারের অমানবিক ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়ামাত্রই ভাইরাল। একজন চিকিৎসক কীভাবে এতটা অমানবিক হতে পারেন, সেই প্রশ্ন করছেন সকলে। কয়েকদিন আগে ঠিক একইরকম ঘটনা ঘটে ভোপালে। এক সবজি বিক্রেতার সঙ্গে একজন নারী অধ্যাপকের দুর্ব্যবহারের ভিডিও ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের সবজি বিক্রেতা মা ও ছেলেকে মারধরের ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটিজেনরা।