চাকরিতে প্রবেশে বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে নীলক্ষেত অবরোধ|339526|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১৩:৪৭
চাকরিতে প্রবেশে বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে নীলক্ষেত অবরোধ
ঢাবি প্রতিনিধি

চাকরিতে প্রবেশে বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে নীলক্ষেত অবরোধ

সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা স্থায়ীভাবে বৃদ্ধিসহ চার দাবিতে ঢাকার নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করেছেন চাকরিপ্রত্যাশীরা।

রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ‘সর্বদলীয় ছাত্রঐক্য পরিষদ’ ব্যানারে নীলক্ষেত মোড়ে সড়ক আটকে তারা বিক্ষোভ শুরু করেন। এতে আশপাশের রাস্তাগুলোতে তীব্র যানজট তৈরি হয়।

তাদের অন্য দাবিগুলো হল- নিয়োগ পরীক্ষায় দুর্নীতি ও জালিয়াতি বন্ধ করতে হবে, নিয়োগ পরীক্ষার (বিসিএস প্রিলিমিনারি ও রিটেন) প্রাপ্ত নম্বরসহ ফলাফল প্রকাশ করতে হবে, চাকরিতে আবেদনের ফি সর্বোচ্চ ১০০ টাকা করতে হবে, একই সময়ে একাধিক নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ করে সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।

এক চাকরিপ্রত্যাশী অবরোধ কর্মসূচিতে বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের ২০১৮ সালের নির্বাচনী ইশতেহারে বলা হয়, পরিস্থিতি অনুযায়ী বাস্তবতার নিরিখে চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা বৃদ্ধির যুক্তিসংগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কিন্তু চরম দুর্ভোগে দীর্ঘ সেশনজট ও করোনায় প্রায় দুই বছর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া চরম বাস্তবতার মাঝেও তিন বছর আগে ছাত্রসমাজকে দেওয়া সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার এখনও বাস্তবায়িত হয়নি। ইশতেহারের বাস্তবায়ন যুব সমাজের প্রাণের দাবি।

তিনি বলেন, বর্তমানে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ বছর, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে ৩২ বছর। এই সীমা বাড়ানোর দাবি বেশ কয়েক বছর ধরেই রয়েছে, যদিও সরকার তাতে সাড়া দেয়নি।

কিন্তু মহামারী প্রলম্বিত হতে থাকায় গত বছর আরেক দফা সুযোগ দেওয়া হয়। বলা হয়, ২০২০ সালের ২৫ মার্চ যাদের বয়স ৩০ বছর হয়েছে, তারাও আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকাশিতব্য সব সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তিতে আবেদন করতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হচ্ছে শুধু সেই নিয়াগে বিজ্ঞপ্তি এই নিয়মের আওতায় আসবে, যে সকল নিয়াগে বিজ্ঞপ্তি করোনাকালে হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু এখনও তা প্রকাশিত হয়নি।