নবজাতকের কপাল কাটার ঘটনায় মামলা|339665|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
নবজাতকের কপাল কাটার ঘটনায় মামলা
হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা
ফরিদপুর প্রতিনিধি

নবজাতকের কপাল কাটার ঘটনায় মামলা

ফরিদপুর শহরের আল মদিনা প্রাইভেট হাসপাতালে প্রসব করাতে গিয়ে নবজাতকের কপাল কাটার ঘটনায় নার্সসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও দশ জনের নামে মামলা করেছেন নবজাতকের বাবা। গতকাল শনিবার রাতে মামলার পর নার্স চায়না বেগম ও হাসপাতালের পরিচালক জাকারিয়া রহমান মোল্লা পলাশকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আসামিদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে আল মদিনা হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স বাতিলের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন করা হয়েছে।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘আমরা ওই প্রতিষ্ঠানের কাগজপত্র খতিয়ে দেখেছি, সেখানে অনেক অনিয়ম পেয়েছি। এর আগেও হাসপাতালটির চিকিৎসাসেবা নিয়ে প্রশ্ন ছিল। যে কারণে আমরা এই প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিলের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।’