আয়োজনে বিপিএল সফল হবে কবে!|340481|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
আয়োজনে বিপিএল সফল হবে কবে!
ক্রীড়া প্রতিবেদক

আয়োজনে বিপিএল সফল হবে কবে!

বিশ্বে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পরিচিতি অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের চেয়েও বেশি। কিন্তু এই বিপিএল যেন অব্যবস্থাপনার অন্য নাম। টুর্নামেন্টের অষ্টম আসর শুরু হলেও একটি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে দেখা যায়নি ৮ আসরে। ধারাবাহিক দল বদলই যেন বিপিএলের নিয়ম। এ ছাড়া প্রথম ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ হিসেবে এবার তো ডিআরএস সিস্টেমও নেই। অষ্টম আসরেও একটা দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া বা কাঠামো দাঁড় করাতে না পারার কারণ হিসেবে বিসিবি অবশ্য ফ্র্যাঞ্চাইজিদের দিকেই আঙুল তুলেছে। বিপিএল গভর্নিং কমিটির সদস্য ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানান, গাইডলাইন তৈরি করেও কোনো লাভ হয় না।

শুধু ফ্র্যাঞ্চাইজিদের গাইডলাইন অমান্যতেই ঝামেলা নয়। বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানালেন ইচ্ছা থাকলেও অনেক কিছুই তারা করতে পারেন না পরিস্থিতির কারণে। তাই বিপিএল নিয়মিত নির্দিষ্ট এক মাসে করতে পারেন না। এখানে আন্তর্জাতিক সিরিজ ও বিপক্ষ দলের ইচ্ছাও নির্ভর করে। ‘ধরেন ফেব্রুয়ারিতে ভারত আমাদের সঙ্গে খেলার উইন্ডো বের করল। তখন তো আমরা ওটাকেই প্রাধান্য দেব। আবার ইংল্যান্ড বলল জানুয়ারিতে তোমরা সিরিজ খেলতে আসো। আমরা তো ওদের মাঠে খেলতে যাই না কত বছর। তখন এটা সামনে আসবে। আবার বিপিএলে ফ্র্যাঞ্চাইজিরা তারকা ক্রিকেটার ছাড়া খেলতেও চায় না। তো সব মিলিয়ে একটা নির্দিষ্ট সময়ে বিপিএল আয়োজন করার মতো অবস্থায় বাংলাদেশ নেই’ বলছিলেন বিসিবি সিইও।

সমস্যা অন্য জায়গাতেও আছে। এবার বিসিবির সঙ্গে বিপিএল দল নিতে হলে এক বছরের চুক্তির কারণে সরে দাঁড়িয়েছে বেক্সিমকো ও বসুন্ধরা। অথচ বিপিএলের অন্যতম বড় দুই দল তারাই। ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানালেন, ফ্র্যাঞ্চাইজিরা কখনই বিসিবির গাইডলাইন মেনে চলে না, নিজেদের স্বার্থটাই দেখে, ‘গাইডলাইন দিলেই তো হয় না, গাইডলাইন মানতে হয়। মানাটাই তো গুরুত্বপূর্ণ। না মানলেই তো মালিক বদলে যায়। তখন দীর্ঘমেয়াদি চিন্তা কীভাবে হবে। আমরা তো ভারতের মতো দেশ না। ভারত যখন চায় তখনই আইপিএল করতে পারে। আবার বিগ ব্যাশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার ছাড়া খেলে। আমরা তো ওরকম পারছি না। আমাদের একটা নির্দিষ্ট সময় যদি বের করতে পারি লং টাইম ফ্র্যাঞ্চাইজি মডেলে যাব।’ এক্ষেত্রে বিপিএলের রাজস্ব বণ্টননীতি হলে হয়ত ফ্র্যাঞ্চাইজিরা আগ্রহী হতে পারে। কিন্তু সেই পথে হাঁটতে চায় না বিসিবি। কারণটা বিপিএল থেকে বিসিবির আয় খুবই কম বলে। মোটকথা বিপিএল যেমন চলছে তেমনই চলবে, এর মধ্যে সবচেয়ে বড় লাভ হলো টুর্নামেন্টটা মাঠে গড়ানো। এবং ক্রিকেটারদের খেলতে পারা।