পুলিশ সপ্তাহ শুরু আজ|340860|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
পুলিশ সপ্তাহ শুরু আজ
দুই বছর মিলিয়ে পদক পাচ্ছেন ২৩০ কর্মকর্তা
নিজস্ব প্রতিবেদক

পুলিশ সপ্তাহ শুরু আজ

পুলিশ সপ্তাহ শুরু হচ্ছে আজ রবিবার। করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যে পুলিশ সপ্তাহ উদযাপনে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। স্বাস্থ্যবিধি বাস্তবায়নে পুলিশ কর্মকর্তাদের মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ে সদস্যদের কড়া নির্দেশনা দিয়েছেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ। গতকাল শনিবার বিকেলে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে পুলিশ সদর দপ্তরে এক বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ‘দক্ষ পুলিশ, সমৃদ্ধ দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’সেøাগানে এবার পুলিশ সপ্তাহের প্রথম দিনে আজ সকাল ১০টায় রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে বার্ষিক প্যারেড হবে। এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় একই স্থানে নৈশভোজ হবে। দ্বিতীয় দিন সোমবার সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত শিল্ড প্যারেডের ফাইন প্রতিযোগিতা ও বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত পুরস্কার বিতরণ করা হবে। দুপুর ১টায় হবে প্রীতিভোজ। আর সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে পুনর্মিলনী হবে।

আগামী মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বেলা ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধান বিচারপতির সম্মেলন ও সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ভার্চুয়ালি ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। পরের দিন বুধবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আইজিপির সম্মেলন হবে। আর পুলিশ সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীদের সম্মেলন হবে। একই দিন বেলা ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সম্মেলনের মাধ্যমে পুলিশ সপ্তাহ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

প্রতি বছর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তাদের দরবার হলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার তা বাতিল করা হয়েছে। তবে পুলিশের দাবিদাওয়া প্রধানমন্ত্রীকে লিখিত জানানো হবে। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে দাবিদাওয়াগুলো তুলে ধরা হবে।

পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা দেশ রূপান্তরকে জানান, পুলিশ প্রধান নিজ ক্ষমতায় তিন কোটি টাকা ব্যয় করতে পারেন। এবার পুলিশ সপ্তাহে এটি ৫০ কোটি টাকা করার দাবি জানানো হতে পারে। পুলিশকে আলাদা বিভাগসহ নানা দাবি জানানো হবে। আজ (গতকাল) পুলিশ সদর দপ্তরে বিষয়টি নিয়ে বৈঠক হয়। বৈঠকে পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি (লজিস্টিক) তৌফিক মাহবুব ও ডিএমপি ট্রাফিক বিভাগের প্রধান মুনিবুর রহমান বক্তব্য দেন।

তিনি আরও জানান, বৈঠকে সার্বিক দিকনির্দেশনা দেন আইজিপি বেনজীর আহমেদ। বেলা ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত চলে এ বৈঠক। বৈঠকে আইজিপি বলেছেন, মাস্ক থেকে ইউনিফর্মকোনো কিছুতেই শৃঙ্খলার ব্যত্যয় ঘটানো যাবে না। ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা কঠোরভাবে মনিটরিং করতে হবে। প্রত্যেক পুলিশ কর্মকর্তা আয়োজকের দায়িত্ব পালন করবেন।

জানা গেছে, পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে গত বছর পুলিশ সপ্তাহ উদযাপন হয়নি। ফলে এবার ২০২০ ও ২০২১ সাল মিলিয়ে পদক পাচ্ছেন ২৩০ কর্মকর্তা। প্রতি বছর প্রধানমন্ত্রী এ পদক পরিয়ে দেন। কিন্তু এবার তার পক্ষে পদক পরিয়ে দেবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।