বিএনপি যা করে দেশকে রক্ষার জন্য করে|341428|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল
বিএনপি যা করে দেশকে রক্ষার জন্য করে
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি যা করে দেশকে রক্ষার জন্য করে

বিএনপি বিদেশে লবিস্ট নিয়োগ করেছে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন যে অভিযোগ করেছেন, তা নাকচ করে দিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ‘আমরা যা কিছু করি, দেশকে রক্ষার জন্য করি, দুর্বৃত্তদের হাত থেকে দেশকে রক্ষার জন্য করি। আমরা লবিস্ট নিয়োগ করেছি, এটা একেবারে সঠিক না।’

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। সোমবার অনুষ্ঠিত দলের স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত জানাতে এই সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

গত ১০ জানুয়ারি সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর উত্তরার বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন মির্জা ফখরুল। ২০ জানুয়ারি তিনি করোনামুক্ত হন। এরপর এই প্রথম গণমাধ্যমের মুখোমুখি হলেন বিএনপি মহাসচিব। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে তার অসুস্থতার সময়ে যারা খোঁজখবর নিয়েছেন এবং দোয়া করেছেন, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ইতিমধ্যে আমাদের দলের স্থায়ী কমিটির জ্যেষ্ঠ সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন পরিষ্কার করে বলেছেন যে বিএনপির পক্ষ থেকে কোনো লবিস্ট নিয়োগ করা হয়নি। এটা পরিষ্কার যে বিএনপি কোনো লবিস্ট নিয়োগ করেনি। আশা করি, এ নিয়ে আপনাদের কোনো কনফিউশন থাকবে না।’

গতকাল সকালে রাজধানীর আগারগাঁও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে ‘মানবিক নীতি এখানে এবং এখন প্রদর্শনী’ উদ্বোধনের পর এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, ‘আমাদের কাছে যথেষ্ট তথ্য আছে, বিএনপি অনেকগুলো লবিস্ট নিয়োগ করেছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বর্তমান সংসদ জনগণের ভোটে বৈধভাবে নির্বাচিত নয়, তাই এই সংসদের কোনো নৈতিক এখতিয়ার নেই নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের আইন প্রণয়নের। তা ছাড়া অতি গোপনীয়তার সঙ্গে তাড়াহুড়ো করে এই আইন প্রণয়নের প্রচেষ্টা জনগণের সঙ্গে আওয়ামী লীগের আরেকটা প্রতারণা। বিগত দুটি সংসদ নির্বাচনে প্রমাণিত হয়েছে নিরপেক্ষ সরকার না থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু করতে চাইলে বর্তমান আওয়ামী লীগের অবৈধ সরকারকে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। সব রাজনৈতিক দলের মতামতের ভিত্তিতে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের সমন্বয়ে ইসি গঠন করে তাদের মাধ্যমে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে হবে।’ দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে এটাকেই একমাত্র পথ বলে মনে করেন তিনি।

স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত জানিয়ে ফখরুল বলেন, করোনা টিকাদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত ৭০ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশ কমিয়ে আনার স্বাস্থ্য বিভাগের সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্থায়ী কমিটি। টিকাদানের বিষয়ে সঠিক চিত্র জনগণের সামনে তুলে ধরার আহ্বান জানানো হয়েছে। সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সব ধরনের আন্দোলনের প্রতি নৈতিক সমর্থন জানানো হয় সভায়। অবিলম্বে উপাচার্যসহ দায়ী সব কর্মকর্তার অপসারণ এবং নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে ছাত্রলীগ ও পুলিশের দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সম্প্রতি সামাজিক গণমাধ্যমে চাঁদপুরের প্রস্তাবিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় স্থাপনের ভূমি অধিগ্রহণ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রীর দুর্নীতির যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তার সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত অবস্থা জনগণের সামনে তুলে ধরার আহ্বান জানানো হয়েছে। এ ছাড়া সভায় সাংবাদিক সাগর-রুনি দম্পতি হত্যার তদন্তের চার্জশিট আদালতে পেশ করার তারিখ ৮৫ বার পেছানোয় গভীর উদ্বেগ জানিয়ে দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তার অপসারণ দাবি করা হয়।