যেকোনো নামি ফার্ম দিয়ে ইভ্যালির অডিট করা যাবে|341451|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
হাইকোর্টের আদেশ
যেকোনো নামি ফার্ম দিয়ে ইভ্যালির অডিট করা যাবে
নিজস্ব প্রতিবেদক

যেকোনো নামি ফার্ম দিয়ে ইভ্যালির অডিট করা যাবে

গ্রাহকের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের পর আলোচনায় আসা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সম্পত্তি দেশের যেকোনো নামি অডিট ফার্মকে দিয়ে অডিট করাতে পারবে বলে আদেশ দিয়েছে উচ্চ আদালত। ইভ্যালির পরিচালনা বোর্ডের করা এক আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের ভার্চুয়াল একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোরশেদ আহমেদ খান। ব্যারিস্টার মোরশেদ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘গত বছরের অক্টোবরে হাইকোর্ট  ইভ্যালি পরিচালনায় বোর্ড গঠন করে দেয়। আদেশে কেপিএমজি নামে একটি প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে ইভ্যালির সম্পত্তি অডিট করতে বলেছিল আদালত। পরে  আমরা ওই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করি। কিন্তু তাদের ফি বেশি হওয়ায় হাইকোর্টের কাছে আরজি জানাই যাতে আমরা যেকোনো স্বনামধন্য অডিট ফার্ম দিয়ে সহনীয় ফি দিয়ে অডিট করাতে পারি। হাইকোর্ট আমাদের আরজি শুনে এ আদেশ দিয়েছে।’ 

এর আগে গত ১৬ জানুয়ারি হাইকোর্টের এই বেঞ্চ এক আদেশে সিটি ব্যাংক ও সাউথ ইস্ট ব্যাংকের দুটি হিসাব থেকে ২ কোটি ৩৫ লাখ টাকা কোম্পানির স্বার্থে উত্তোলন করতে পরিচালনা বোর্ডকে অনুমতি দেয়। একই সঙ্গে ইভ্যালির নামে থাকা ২২টি গাড়ি বিক্রি বা ভাড়া দিয়ে কোম্পানির স্বার্থে ব্যবহার করা যাবে বলে আদেশ দেয় আদালত। গত বছরের ১৮ অক্টোবর হাইকোর্ট এক আদেশে ইভ্যালি ব্যবস্থাপনায় চারজনের একটি অন্তর্বর্তীকালীন বোর্ড গঠন করে দেয়। বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে।

ইভ্যালি থেকে প্রতারিত এক গ্রাহকের করা আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে গত ৩০ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠানটির যাবতীয় নথি তলব করে হাইকোর্ট। ১২ অক্টোবরের মধ্যে যৌথ মূলধনী কোম্পানি ও ফার্মমূহের (জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মস) পরিদপ্তরের নিবন্ধককে এ সংক্রান্ত নথি দাখিল করতে বলে হাইকোর্ট। এর ধারাবাহিকতায় নথি দাখিল করা হয়। গত ১২ অক্টোবর নথি পর্যালোচনার পর ইভ্যালির দায়দেনা নিরুপন এবং প্রতিষ্ঠানটি তদারকি করতে চার সদস্যের একটি বোর্ড গঠনে অভিমত দেয় হাইকোর্ট।