দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ|341460|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০
দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ
বিশেষ প্রতিনিধি

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ

দেশে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড হয়েছে। ৬ মাস পর গতকাল মঙ্গলবার সংক্রমণের দুই সূচক শনাক্তের হার ও রোগীর সংখ্যায় এই রেকর্ড হয়। দ্বিতীয়বারের মতো দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৬ হাজারের ঘরে পৌঁছাল এবং এই প্রথমবারের মতো মোট রোগীর সংখ্যা ১৭ লাখ ছাড়িয়ে গেল।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ১৮১ দিন বা ৬ মাস পর গতকাল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ৩৩ রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর আগে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ রোগী শনাক্ত হয়েছিল গত বছরের ২৮ জুলাই। শনাক্ত রোগীর এই সংখ্যা সর্বোচ্চ রেকর্ড থেকে মাত্র ১৯৭ জন কম।

অন্যদিকে, ১৮৫ দিন বা সোয়া ৬ মাস পর গতকাল পরীক্ষা অনুপাতে করোনা শনাক্তের হারেও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হার ছিল ৩২ দশমিক ৪০ শতাংশ। এর আগে এর চেয়ে বেশি অর্থাৎ সর্বোচ্চ শনাক্ত হার ছিল গত বছরের ২৪ জুলাই, ৩২ দশমিক ৫৫ শতাংশ। গতকালের শনাক্ত হার সর্বোচ্চ শনাক্ত হার থেকে মাত্র দশমিক ১৫ শতাংশ কম।

দেশে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন সংক্রমণের উদ্বেগজনক ঊর্ধ্বগতির মধ্যে গতকাল করোনা সংক্রমণের এই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড হলো। মহামারী দেখা দেওয়ার পর গতকাল দ্বিতীয়বারের মতো দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৬ হাজারের ঘরে পৌঁছাল ও প্রথমবারের মতো মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৭ লাখ ছাড়িয়ে ১৭ লাখ ১৫ হাজার ৯৯৭ জন হলো।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৮ জন। মোট মৃত্যু হলো ২৮ হাজার ২৫৬ জনের। গত এক দিনে দেশে সেরে উঠেছেন ১ হাজার ৯৫ জন। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত ১৫ লাখ ৫৮ হাজার ৯৫৪ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত করোনা রোগীদের মধ্যে ১০ হাজার ৪৭৮ জনই ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা, যা মোট আক্রান্তের ৬৫ দশমিক ৩৫ শতাংশ। তাদের মধ্যে ঢাকা জেলায় ৯৪৮৭ জন, গাজীপুরে ১৬৮ জন, নারায়ণগঞ্জে ২০৪ জন হয়েছে। চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় ১৩৪৯ জন, কক্সবাজারে ২৪৬ জন, রাঙ্গামাটি জেলায় ১০২, চাঁদপুরে ১১৪ জন, কুমিল্লায় ২০২ জন; রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী জেলায় ৩২৫ জন, পাবনায় ১০৯ জন, বগুড়ায় ২০০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া খুলনা বিভাগের মধ্যে খুলনা জেলায় ১৮২ জন, যাশোরে ১৯৬ জন; সিলেট বিভাগের সিলেট জেলায় ৪৪৮ জন, হবিগঞ্জে ১০৫ জন, মৌলভীবাজারে ১৩৫ জন; বরিশাল জেলায় ১২০ জন এবং ময়মনসিংহে ২৫৩ জন শনাক্ত হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের ১২ জন পুরুষ ও ছয়জন নারী। তাদের মধ্যে আটজন ছিলেন ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। এ ছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগের ছয়জন, রাজশাহী বিভাগের একজন, খুলনা বিভাগের একজন, বরিশাল বিভাগের একজন এবং সিলেট বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন একজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ৯ জনের বয়স ৬০ বছরের বেশি, পাঁচজনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, দুজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছর এবং একজনের বয়স ১০ বছরের কম ছিল।