গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজে দৃষ্টিনন্দন বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন|359405|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৯ মে, ২০২২ ১৫:৩৪
গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজে দৃষ্টিনন্দন বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন
চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজে দৃষ্টিনন্দন বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, আদর্শ ও দেশপ্রেম শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজে নান্দনিকভাবে স্থাপন করা হয়েছে 'বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার'।

কলেজের লাইব্রেরি ভবনে স্থাপিত কর্নারটি সোমবার সকালে কলেজের অধ্যক্ষ ভারপ্রাপ্ত ড. সুব্রত বরণ বড়ুয়া উদ্বোধন করেন।

নবরূপে নান্দনিকভাবে সাজানো স্থাপিত কর্নারটি ইতিমধ্যে কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সবার নজর কেড়েছে।

স্থাপিত কর্নারটি ঘুরে দেখা যায়, বঙ্গবন্ধু কর্নারে রয়েছে একটি পাঠাগার- যেখানে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বিভিন্ন বই স্থান পেয়েছে। রয়েছে বঙ্গবন্ধুর নিজের লেখা  'অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা, আমার দেখা নয়াচীন'।

বই পড়ার জন্য দেওয়া রয়েছে আসন (চেয়ার-টেবিল)। দেয়ালে বঙ্গবন্ধুর বিশাল পোর্ট্রেট ছাড়াও রয়েছে পারিবারিক ছবি, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের ছবি, এক নজরে বঙ্গবন্ধুর সংক্ষিপ্ত জীবনী, বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন উক্তি, তার জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত গোটা ইতিহাসের একটি ধারাবাহিক চিত্র সুদৃশ্যভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে কর্নারটিতে।

ছাত্র-ছাত্রীরা কর্নারে বসে লাইব্রেরিতে রক্ষিত বই পাঠের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে পারবে। এ ছাড়া, বঙ্গবন্ধু কর্নারে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর ওপর দুই শতাধিক বইও স্থান পেয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মুক্তিযুদ্ধ কর্নার স্থাপনের জন্য কলেজ অধ্যক্ষসহ শিক্ষকমণ্ডলীকে ধন্যবাদ জানিয়ে কলেজের অর্থনীতি বিভাগের অনার্স ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী নাহিদা আকতার জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে সকল শিক্ষার্থীর সম্যক ধারণা থাকা উচিত।

এই কর্নারটি স্থাপনের মাধ্যমে কলেজের সকল ছাত্র-ছাত্রী খুব সহজেই বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জ্ঞানলাভের পথ সুগম হলো।

কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও লাইব্রেরি কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ ফখরুল মাওলা বলেন, প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার স্থাপনে বর্তমান সরকারের একটি নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু আমরা কলেজে মাননীয় অধ্যক্ষ মহোদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী অনেক আগে থেকেই এই কর্নারের কার্যক্রম শুরু করি এবং একটি সমৃদ্ধ ও দৃষ্টিনন্দন কর্নার তৈরিতে সক্ষম হই।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. আবদুল খালেক বলেন, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের কর্নার স্থাপিত হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রীসহ সকলেই বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে ও তাদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত হবে।

গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) ড. সুব্রত বরণ বড়ুয়া বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মুক্তিযুদ্ধ কর্নারে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছবি স্থাপন করা হয়েছে।

এ ছাড়াও জন্মের পর থেকে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার সন ও তারিখ উল্লেখ করে এক নজরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী সংক্ষিপ্ত রূপে দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নারের মাধ্যমে আগামী প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুর চেতনায় উজ্জীবিত হবে। বঙ্গবন্ধুর চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে তরুণ প্রজন্মকে দায়িত্বশীল হতে হবে। এই কর্নারের সমৃদ্ধ আয়োজন নতুন প্রজন্মের চিন্তার খোরাক জোগাবে এবং মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে সহায়ক হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

এ সময় তিনি এই কর্নার তৈরিতে জড়িত সকল অধ্যাপককে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে কলেজের অধ্যাপকবৃন্দ, অনুষদ সদস্যবৃন্দ ও বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

দৃষ্টিনন্দন এই কর্নারে প্রায় দুই শতাধিক বই, ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণসহ বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের উপর আলোকচিত্র ও প্রামাণ্যচিত্র রয়েছে।