অবৈধ সম্পদ: স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু|359780|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ মে, ২০২২ ২০:৫২
অবৈধ সম্পদ: স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু
নিজস্ব প্রতিবেদক

অবৈধ সম্পদ: স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের দুই মামলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক মো. আব্দুল মালেক ও তার স্ত্রী নার্গিস বেগমের বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত।

ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান বুধবার তাদের বিরুদ্ধে দুই মামলার অভিযোগ গঠন করে আগামী ৭ জুন সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ঠিক করে দেন।

মামলার একটিতে আসামি শুধু মালেক। অপর মামলায় তার সঙ্গে স্ত্রী নার্গিসও আসামি।

আসামিপক্ষের আইনজীবী শাহিনুর ইসলাম অনি জানান, মালেক ও নার্গিসের পক্ষে জামিন আবেদন করা হলে বিচারক শুনানির জন্য আগামী ১৯ মে দিন ঠিক করে দেন।

গত বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি মালেক ও তার স্ত্রী নার্গিস বেগমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগে মামলা দুটি করে দুদক। এছাড়া ওই দিন মালেকের বিরুদ্ধে একটি অস্ত্র মামলাও দায়ের করা হয়। ওই মামলায় দুই ধারায় ১৫ বছর করে ৩০ বছর সাজা খাটছেন এ গাড়িচালক।

মালেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি এক কোটি ৫০ লাখ ৩১ হাজার ৮১০ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদের মালিক হয়েছেন। এছাড়া ৯৩ লাখ ৫৩ হাজার ৬৪৮ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন।

অপর মামলায় নার্গিস বেগমের দুই কোটি ১২ লাখ ৩৫ হাজার ৪৩১ টাকার সম্পদ রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। এর মধ্যে বৈধ উৎস পাওয়া যায় এক কোটি এক লাখ ৪৩ হাজার ৩৮২ টাকা। বাকি এক কোটি ১০ লাখ ৯২ হাজার ৫০০ টাকার সম্পদ অবৈধ উপায়ে অর্জিত হয়েছে বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

২০২০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তুরাগ এলাকা থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক মালেককে আটক করে র‌্যাব। ওই দিনই তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়।

অস্ত্র মামলায় বিচার শেষে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মালেককে ১৫ বছর করে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। তবে দুই ধারার সাজা একত্রে চলবে বলে তাকে ১৫ বছরই কারাগারে কাটাতে হবে।