কোরআনের শিক্ষা|360193|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৪ মে, ২০২২ ০০:০০
কোরআনের শিক্ষা

কোরআনের শিক্ষা

অন্তহীন সফলতা

এখন তো যৌবনকাল, এ বয়সে একটু আমোদ-ফুর্তি না করলে আর কখন করব। এমন মানসিকতা পোষণকারীদের জন্য সতর্কবার্তা হলো ‘যে ব্যক্তি যৌবনে আল্লাহর ব্যাপারে উদাসীন থাকে, মহান আল্লাহ বুড়ো বয়সে তার প্রতি উদাসীন থাকবেন।’ আল বিদায়া : ১২০

‘যৌবন হচ্ছে পনেরো থেকে ত্রিশ বছর বয়সের সময়কাল।’ শরহে রিয়াদুস সালেহিন : ১/৪৬২

আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘সাত শ্রেণির মানুষ কিয়ামতের দিন মহান আল্লাহর আরশের ছায়ায় স্থান পাবে। তার মধ্যে এক শ্রেণি হচ্ছে ওইসব যুবক-যুবতী যারা তাদের যৌবনের সময়টুকু আল্লাহর ইবাদত-বন্দেগিতে অতিবাহিত করেছে।’ সহিহ বোখারি

আমি-আপনি যে বৃদ্ধ বয়সে উপনীত হতে পারব, তার কি কোনো নিশ্চয়তা আছে? তাই সময় থাকতে আল্লাহর কাছে ফিরে যাওয়ার আগেই তার দিকে প্রত্যাবর্তন করা বুদ্ধিমানের কাজ। যখন মন থেকে অনুভব করবেন, আপনার একজন রব আছেন, তিনি আপনাকে পরিচালিত করেন, খাওয়ান, দেখান তখন তার প্রতি কৃতজ্ঞতাবশত চোখ দুটো অশ্রুসিক্ত হতে বাধ্য। সত্যি বলতে কি, আমরা ভাসাভাসারূপে আল্লাহকে বিশ্বাস করি, তাকে হৃদয়ের গভীর থেকে অনুভব করি না বা করতে পারি না। এটা আমাদের ব্যর্থতা, অযোগ্যতা। সাহাবিদের ব্যাপারে বলা হয়, তারা কোরআনে কারিমকে বুকে জড়িয়ে আবেগাক্রান্ত হয়ে বলতে থাকতেন, ‘হাজা কালামু রাব্বি! হাজা কালামু রাব্বি!’ এটা আমার রবের কথা! এটা আমার রবের কথা!

আপনি যখন হৃদয় দিয়ে বিশ্বাস করবেন, মৃত্যুর পর আসল জীবন শুরু হবে; সেখানে অনন্তকাল থাকতে হবে। তখন আপনি দুনিয়াতে অবশ্যই নেককাজে মনোযোগী হবেন। তখন দুনিয়াতে কোনো না পাওয়ার বেদনা আপনাকে গ্রাস করতে পারবে না। যেমন আপনি দেখতে তেমন সুন্দর নন, গুছিয়ে কথা বলতে পারেন না, আপনি দরিদ্র অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন, নিশ্চিত হয়ে গেছেন এই জীবনে আপনি আর কোনো দিন আব্বা-আম্মা ডাক শুনতে পারবেন না, কিংবা আপনার চূড়ান্ত পর্যায়ের ক্যানসার ধরা পড়েছে, ডাক্তার কোনো আশার কথা শোনাতে পারেননি।

এসব কিছুতে তখন আর আপনি বিচলিত হবেন না মোটেও, দুঃখে ভারাক্রান্ত হবেন না। হতাশা চেপে ধরবে না, উদভ্রান্তের মতো পায়চারি করবেন না। কারণ আপনি জানেন, এসব সমস্যা, দুঃখ-বেদনা আপনার আখেরাতের জীবনে সফলতা অর্জনের পথে কোনো বাধা নয়। শুধু ক্ষণিকের দুনিয়ায় আপনি কিছু ক্ষেত্রে বঞ্চিত হচ্ছেন এটুকুই। কারণ এসব সমস্যার ভিড়ে যদি আপনি আল্লাহকে সন্তুষ্ট রেখে মৃত্যুবরণ করতে পারেন তবেই আপনি সফল! চূড়ান্ত সফল! যে সফলতার কোনো অন্ত নেই।

গ্রন্থনা : মাওলানা এম এ হানিফ