বিশ্ব আইবিডি দিবস আজ|361234|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৯ মে, ২০২২ ১১:৩৭
বিশ্ব আইবিডি দিবস আজ
অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব আইবিডি দিবস আজ

বিশ্ব আইবিডি দিবস আজ। পরিপাকতন্ত্রে মারাত্মক প্রদাহ সৃষ্টিকারী একটি রোগ ‘ইনফ্লেমেটরি বাওয়েল ডিজিজ’ বা ‘আইবিডি’। দিবসটির এ বছরের স্লোগান হচ্ছে—যেকোনো বয়সেই হতে পারে আইবিডি রোগ।

বিশ্বে প্রায় এক কোটি আইবিডি রোগী আছে। এই রোগ সম্পর্কে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের সরকার ও স্বাস্থ্য পেশাজীবীদের বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানানোর উদ্দেশ্যে প্রতিবছর ১৯ মে ‘বিশ্ব আইবিডি দিবস’ পালিত হয়। 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পেটের প্রদাহজনিত রোগ বা আইবিডি (ইনফ্লেমেটরি বাওয়েল ডিজিজ) ক্লিনিকে আসা রোগীদের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মোট রোগীর ৬০ শতাংশ পুরুষ ও ৪০ শতাংশ নারী। রোগীদের প্রায় সবাই ২০-৪৫ বছর বয়সী। অর্থাৎ তরুণদের মধ্যে রোগটির প্রকোপ বেশি। তবে একেবারে কম বয়স থেকে শুরু করে ৯০ বছর বয়সীদেরও এ রোগ হতে পারে। শহরের লোকজনের মধ্যে রোগটির প্রকোপ একটু বেশি হলেও গ্রাম ও শহরের মানুষের মধ্যেই এ রোগের প্রবণতা কাছাকাছি। শ্রেণি বিবেচনায় গরিব ও ধনী রোগী সমান।

এমন তথ্য জানিয়ে আইবিডি ক্লিনিকের সমন্বয়কারী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. চঞ্চল কুমার ঘোষ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ২০১৭ সাল থেকে ক্লিনিকটি পরিচালনা করছি। পেটের প্রদাহজনিত রোগ বা আইবিডি বলতে দুটি আলাদা রোগ আলসারেটিভ কোলাইটিস ও ক্রোনস ডিজিজকে বোঝায়। এই পাঁচ বছরে ৬১৭ জন রোগী নিবন্ধিত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ২৯০ জন ক্রোনস ডিজিজ ও ৩২৭ জন আলসারেটিভ কোলাইটিস রোগী রয়েছেন।’

অধ্যাপক ডা. চঞ্চল কুমার ঘোষ বলেন, ‘রোগটি যদি দ্রুত শনাক্ত করা যায়, তাহলে এ রোগের চিকিৎসা আছে। তবে চিকিৎসার মাধ্যমে সম্পূর্ণ ভালো হয় না, নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এ ক্ষেত্রে যদি কারও রক্ত আমাশয়ের মতো উপসর্গ হয়, অথবা দীর্ঘদিন ধরে পাতলা পায়খানা হয় ও পেটে ব্যথা থাকে, ওজন কমে যায়, সে ক্ষেত্রে দেরি না করে হয় গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিস্টকে দেখাতে হবে। রোগটি শনাক্ত করে চিকিৎসা নিলে রোগীর যেসব জটিলতা হয়, যেমন নাড়ি ফুলে যায়, গিড়ায় ব্যথা ও গিড়া ফুলে যাওয়া, চোখে ব্যথা ও চোখ লাল হয়ে যাওয়া, চামড়ায় প্রদাহ বা ঘা, নাড়ি বন্ধ হয়ে যাওয়া ও ফুলে ওঠা, শেষ পর্যন্ত তার ক্যানসার এগুলো থেকে মুক্তি পেতে পারেন।’

দিবসটি উপলক্ষে বিএসএমএমইউ সেমিনার ও শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন আইবিডি ক্লিনিকের কো-অর্ডিনেটর ও গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. চঞ্চল কুমার ঘোষ এবং সেমিনারটির সভাপতিত্ব করবেন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. আনওয়ারুল কবীর।