প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা না চাইলে জনগণ বিচার করবে: খন্দকার মোশাররফ |361646|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ মে, ২০২২ ১৭:৩১
প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা না চাইলে জনগণ বিচার করবে: খন্দকার মোশাররফ
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা না চাইলে জনগণ বিচার করবে: খন্দকার মোশাররফ

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। পুরোনো ছবি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। এ জন্য তাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। ক্ষমা নাই চাইলে ভবিষ্যতে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বিচার জনগণ করবে।

শনিবার (২১ মে) জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে সাবেক সংসদ সদস্য ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন আহম্মেদ পিন্টুর সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সম্মিলিত ছাত্র যুব ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

গত শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ‘খুব শিগগিরই বিএনপিসহ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপে বসার জন্য আহ্বান জানানো হবে।’

সিইসি’র বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় খন্দকার মোশাররফ বলেন,  ‘বিএনপি ঘোষণা করেছে, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকলে নির্বাচনে যাবে না। এ কারণে এই নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের সময় যে সিলেকশন কমিটির নামে নাটক হয়েছে, সেখানে বিএনপির অংশ নেয়নি। আমরা জানি না এই ইসি কারা। আমরা তাদের কোনোভাবেই স্বীকৃতি দিই না।’

তিনি বলেন, ‘আজকে গায়ের জোরে হোক বা অবৈধভাবে হোক, তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী। তারা কথায় কথায় বলে, শ্রীলঙ্কার মতো পরিস্থিতি এ দেশে হবে না। শ্রীলঙ্কায় যা ঘটেছে, তা হলো পরিবারতন্ত্র এবং স্বৈরশাসন। তারা ১৮ বছর চালিয়েছে। তাদের সেনাপ্রধান, পুলিশ কিন্তু সরকারের বাইরে ছিল না। যখন অর্থনৈতিকভাবে শ্রীলঙ্কা সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেল, তখন মানুষ রাস্তায় নেমেছে। তখন সেনাপ্রধান, পুলিশ প্রধানমন্ত্রী কিন্তু প্রধানমন্ত্রীকে রক্ষা করতে পারেনি।’

বাংলাদেশের অবস্থা কীভাবে শ্রীলঙ্কার মতো হবে? এ সম্পর্কে সাবেক মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা শ্রীলঙ্কার চেয়ে ভালো নয়। কারণ বাংলাদেশের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পর্কে সরকার সঠিক তথ্য প্রকাশ করছে না। বিদেশ থেকে বাংলাদেশে যেসব ঋণ নিচ্ছে, তার তথ্য প্রকাশ করছে না। এখন পর্যন্ত চাপাবাজি করছে এই সরকার। সরকার বলছে, অর্থনীতি ভালো আছে। দুই মাস আগে যে ডলারের দাম ৮২ টাকা ছিল, সেটা এখন ১০২ টাকা। এটা কে নিয়ন্ত্রণ করবে, কোনো কিছুই আসলে নিয়ন্ত্রণে নেই। এ কারণে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থেকেও ভালো নেই, রাতে ঘুমাতে পারে না।’

পিন্টু সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘সরকার পিন্টুতে কারাগারে রেখে তিলে তিলে হত্যা করেছে। পিন্টু হত্যার বিচার একদিন এ দেশে হবে।’

সম্মিলিত ছাত্র যুব ফোরামের আহ্বায়ক নাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, রাজশাহী বিভাগ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া প্রমুখ।