খালেদা জিয়াকে যারা 'টুস' করে ফেলতে চায়, জনগণ তাদেরকে 'ঠাস' করে ফেলে দেবে|362541|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ মে, ২০২২ ১৩:০৮
সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বললেন
খালেদা জিয়াকে যারা 'টুস' করে ফেলতে চায়, জনগণ তাদেরকে 'ঠাস' করে ফেলে দেবে
নিজস্ব প্রতিবেদক

খালেদা জিয়াকে যারা 'টুস' করে ফেলতে চায়, জনগণ তাদেরকে 'ঠাস' করে ফেলে দেবে

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে যারা 'টুস' করে পানিতে ফেলে মারতে চায়, সেদিন বেশি দূরে নয় জনগণ তাদের 'ঠাস' করে ক্ষমতা থেকে ফেলে দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। 

আজ বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকালে নেত্রকোনা জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কটূক্তির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী নেত্রকোনা জেলা বিএনপি নেত্রকোনা পৌর শহরের ছোট বাজারে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সড়কে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে।

এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে পদ্মা নদীর পানিতে ফেলে দেয়ার কথা বলে প্রধানমন্ত্রী তার প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে চরম প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়ে শপথ ভঙ্গ করেছেন। রাজনৈতিকভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে একের পর এক ষড়যন্ত্র করে প্রতিহিংসা চরিতার্থ করছেন। অথচ শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের বদন্যতায় তিনি দেশে ফিরে রাজনীতি করছেন, পৈত্রিক সহায় সম্পদ ফিরে পেয়েছেন। 

তিনি বলেন, ১/১১ পরবর্তী সময়ে বেগম খালেদা জিয়ার অনমনীয় মনোভাবের কারণেই তিনি দেশে ফিরে আসার সুযোগ পেয়েছিলেন এবং জরুরি অবস্থার সরকারের 'মাইনাস টু ' ফরমূলা ভেস্তে গিয়েছিল। সামান্য কৃতজ্ঞতা বোধ থাকলে তিনি এসব করতেন না। 

এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, সরকারের পায়ের নীচে মাটি নাই, মাথার ওপর ছায়াও সরে যাচ্ছে। এসব কারণেই তারা হুমকি-ধমকি, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য করে ক্ষমতায় টিকে থাকার শেষ চেষ্টা করছে। 

তিনি সারা দেশে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, জনতার বিক্ষোভ ঠেকাতে তারা সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়েছে। সারা দেশে সংঘাত-নৈরাজ্য সৃস্টি করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। দুর্নীতি লুটপাট করে সরকার দেশকে ডুবিয়ে দিচ্ছে। ডুবন্ত দেশকে রক্ষা করতে তীব্র গণ আন্দোলনের মাধ্যমে ব্যার্থ সরকারকে হটাতে হবে। 

তিনি বলেন, আন্দোলনকে বিজয়ী করতে যে কোনও ত্যাগ স্বীকারে সকলকে প্রস্তুতি নিতে হবে। 

নেত্রকোনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. আনোয়ারুল হকের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব ড. রফিকুল ইসলাম হিলালীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এড. আরিফা জেসমিন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এড.মাহফুজুল হক, মজিবর রহমান খান, তাজেজুল ইসলাম ফারাস, বজলুর রহমান খান পাঠান, মনিরুজ্জামান দুদু, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সালাহ উদ্দিন খান মিল্কি উপস্থিত ছিলেন।