৫ ধান কাটা শ্রমিকসহ সড়কে নিহত ১৮|362683|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ মে, ২০২২ ০০:০০
৫ ধান কাটা শ্রমিকসহ সড়কে নিহত ১৮
রূপান্তর ডেস্ক

৫ ধান কাটা শ্রমিকসহ সড়কে নিহত ১৮

নাটোরের বাগাতিপাড়া ও গুরুদাসপুরের বেশ কজন শ্রমিক দিন পনেরো আগে দল বেঁধে টাঙ্গাইল গিয়েছিলেন ধান কাটতে। দুই সপ্তাহের কাজ শেষে গত বুধবার রাতে তারা ফিরছিলেন বাড়িতে। কিন্তু বাড়ির অনেকটা কাছে এসেও তাদের পাঁচজনের আর বাড়ি ফেরা হলো না। রাত আড়াইটার দিকে শ্রমিকদের বহনকারী লেগুনা ও একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন তারা। সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার রামারচর ব্রিজ এলাকায় ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আর ছয়জন। গত বুধবার রাতের ওই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ছাড়াও গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন এলাকায় আরও কয়েকটি দুর্ঘটনায় অন্তত ১৩ জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে গতকাল সকালে বান্দরবানে একটি মাইক্রোবাস খাদে পড়ে নিহত হয়েছেন তিন পর্যটক। এ ছাড়া পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় রাজধানী ঢাকায় চারজন, চট্টগ্রামে তিনজন এবং খুলনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কিশোরগঞ্জে একজন করে নিহত হয়েছেন। 

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্যে বিস্তারিত

৫ ধান কাটা শ্রমিক নিহত : সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলা ও সলঙ্গা থানার সলঙ্গা ইউনিয়নের রামারচর গোজা ব্রিজ এলাকায় হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রথম প্রহরের ট্রাক-লেগুনা সংঘর্ষে ৫ ধান কাটা শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে দুর্ঘটনাস্থলেই নিহত হন চারজন। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও একজনের মৃত্যু হয়। আরও ৬ জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহতরা হলেন নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার ছোটপাকা ইউনিয়নের ছোটপাকা গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে মকুল হোসেন (৩৫), আবুল হোসেনের ছেলে মনির হোসেন (৩৪), একই উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে মকবুল হোসেন (৩৫), ইজাল হকের ছেলে আবদুল হালিম (৩৫) ও গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের জুমাইনগর গ্রামের আবদুল কুদ্দুসের ছেলে হায়দার আলী (৪০)।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসি লুৎফর রহমান জানান, লেগুনাটি হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের গোজা ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা পাথরবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত ও সাতজন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ ও রাজশাহীর বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতদের লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার পাকা, বাঁশাড়িয়া ও গুরুদাসপুর উপজেলার জুমাইনগর গ্রামে পৌঁছালে স্বজনদের কান্না ও আহাজারিতে এলাকার বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। অন্যদিকে নিহতদের লাশ একনজর দেখার জন্য সেখানে শত শত নারী-পুরুষ ভিড় করেন। এ ঘটনায় পুরো গ্রামে শোকের মাতম চলছে।

খবর পেয়ে নাটোর জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ নিহতদের বাড়ি ছুটে যান এবং স্বজনদের সমবেদনা জানান। তিনি নিহতদের জনপ্রতি ২৫ হাজার টাকা অনুদান ঘোষণা করেন। এ ছাড়া বাগাতিপাড়া উপজেলা পরিষদ থেকে তাৎক্ষণিক নিহতদের দাফন কাজের জন্য ৫ হাজার টাকা করে দেন বাগাতিপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান অহিদুল ইসলাম গকুল। এ সময় সেখানে বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কা দেবী পাল, পাকা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নয়েজ মাহমুদ ও জামনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম রাব্বানী উপস্থিত ছিলেন।

বান্দরবানে মাইক্রোবাস খাদে পড়ে ৩ জন নিহত : বান্দরবান-থানচি সড়কে জীবননগর এলাকায় পর্যটকবাহী একটি মাইক্রোবাস খাদে পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা শহর থেকে থানচি যাওয়ার পথে ৫০ কিলোমিটার দূরে জীবননগর পাহাড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন হামিদুল ইসলাম, ময়মনসিংহের মঞ্জুর আলম ও ফরিদপুরের মো. জয়নাল। তারা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তাকর্মী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

থানচি থানার ওসি সুদীপ রায় জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা থেকে আটজনের একদল পর্যটক থানচিতে বেড়াতে যান। পথে বান্দরবান শহর থেকে থানচি যাওয়ার পথে মাইক্রোবাসটি গভীর খাদে পড়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে একজন নিহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরা চালকসহ আহতদের উদ্ধার করে।

রাজধানীর সড়কে নিহত ৪ : রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু ও নারীসহ চারজন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে খিলগাঁও তালতলা এলাকায় নার্গিস (২৫) নামে এক নারী ও হাজারীবাগ বেড়িবাঁধে অজ্ঞাতনামা (৪২) এক ব্যক্তি ও কোতোয়ালি ন্যাশনাল হাসপাতালের সামনে বাস ধাক্কায় সিরাজ (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আর তেজগাঁওয়ে মদীনা মসজিদ এলাকায় ট্রাকচাপায় নিহত হয়েছে ২ বছর বয়সী শারমিন আক্তার। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর থেকে বিকেলের মধ্যে দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

চট্টগ্রামে নিহত ৩ : চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে আবদুল হামিদ (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গত বুধবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার মইজ্জ্যারটেক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হামিদ উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া এলাকার আবদুর রাজ্জাকের ছেলে। কর্ণফুলী থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হামিদের লাশ কোনো অভিযোগ না থাকায় পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে আনোয়ারায় রাস্তা পার হওয়ার সময় দ্রুতগতির একটি পিকআপ-ভ্যানের চাপায় দীপঙ্কর নাথ (১০) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার পিএবি সড়কের কালাবিবি দীঘির মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পিকআপের চালককে আটক করেছে পুলিশ। নিহত শিশুটি পটিয়া উপজেলার মালিয়ারা গ্রামের বাসিন্দা মৃত সজল নাথের ছেলে। কয়েক দিন আগে দীপঙ্কর চাতরী গ্রামে তার খালার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

অন্যদিকে সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের সাইনবোর্ড (বগুলা বাজার) এলাকায় গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে গাড়িচাপায় ইফতেখার হোসেন মুন্না (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার পৌরসভাধীন উত্তর ইদিলপুরের মো. ইমাম হোসেনের ছেলে।

বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি নাজমুল হক জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে অজ্ঞাত একটি গাড়ির ধাক্কায় এক মোটরসাইকেল আরোহী ঘটনাস্থলে নিহত হন। নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা আসার পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

খুলনায় ট্রাকচাপায় পথচারীর মৃত্যু : খুলনায় সড়ক দুর্ঘটনায় মিজানুর রহমান বাচ্চু (৬৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর হরিণটানা থানা এলাকার জিরোপয়েন্ট শিকদার মার্কেটের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত বাচ্চু নগরীর দারোগাপাড়া এলাকার মসজিদ লেনের বাসিন্দা মাহাবুবের ছেলে। হরিণটানা থানার ওসি এমদাদুল হক বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুমেকের মর্গে রয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহত ১ : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে রুবেল মিয়া (৩৫) নামে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বুধন্তী ইউনিয়নের বীরপাশা এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত রুবেলের বাড়ি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে বলে জানা গেছে। এ দুর্ঘটনায় আহত আরও দুই যাত্রীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ওসি সুখেন্দ্র বসু জানান, হতাহতদের স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তায় সরাইল দমকল বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার করেন।

কিশোরগঞ্জে নারী নিহত : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা সড়ক দুর্ঘটনায় সুবেনা আক্তার (৪৫) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। নিহত সুবেনা আক্তার পাকুন্দিয়া উপজেলার পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়নের মহিষবেড় গ্রামের মৃত আ. আলীর মেয়ে। গতকাল বিকেল ৪টার দিকে পাটুয়াভাঙ্গা মহিষবেড় সড়কে নিহতের ছোট ছেলে দৌড়ে রাস্তায় চলে গেলে তাকে বাঁচাতে গেলে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাপায় ওই নারী দুর্ঘটনার শিকার হন।