logo
আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৫:৪৬
রংপুরে স্বপ্নাকে ছাদখোলা জিপে সংবর্ধনা
রংপুর সংবাদদাতা

রংপুরে স্বপ্নাকে ছাদখোলা জিপে সংবর্ধনা

সাফ জয় শেষে দেশে ফেরা নারী ফুটবলাররা সংবর্ধনায় সাড়ম্বর সময় কাটাচ্ছেন। ঢাকায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান-সংগঠনের পাশাপাশি নিজ এলাকাতেও তাদের বরণ করে নেওয়া হয়েছে। ছাদখোলা বাসে বিমানবন্দর থেকে বাফুফে ফেরার অভিজ্ঞতা হয়েছে আগেই। এবার সিরাত জাহান স্বপ্না পেলেন ছাদ খোলা জিপে সংবর্ধনা।

আজ নিজ বাড়ি রংপুরে ফিরেছেন সিরাত জাহান স্বপ্না। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার সময় ঢাকা থেকে নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। রংপুরের স্বপ্নাকে তখন ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা ফুল দিয়ে রাজসিক বরণ করে নেন। এসময় ফুটবলার সোহাগী কিসকো ও স্বপ্না রানী রায়ও উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সাফ জয়ী দলের সদস্য সিরাত জাহান বিদেশী লিগে খেলার সু-সংবাদ জানিয়ে বলেন, বিদেশি লিগে খেলার জন্য মৌখিকভাবে সাত ফুটবলারকে নির্বাচনের কথা বলা হয়েছে। এর মধ্যে আমার নাম রয়েছে। আশা করছি বিদেশি লিগে খেলতে পারবো।

স্বপ্না আরও বলেন, রংপুরের মানুষ আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে দেখে আমি খুবই আনন্দিত হয়েছি। এভাবে বরণ করে নেওয়াতে আমরা খুবই আনন্দিত। তিনি বিদেশী ক্লাবে খেলার সম্ভাবনার কথা জানিয়ে এই তারকা খেলোয়ার আরও বলেন, আমরা সকলের সাপোর্ট চাই যাতে করে আরও ভালো কিছু করতে পারি।

স্বপ্না বলেছেন, শিরোপা ঘরে আনতে পেরে আমরা গর্ববোধ করছি। দেশের সবাই আমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। আামি যখন প্রথম ফুটবল খেলা শুরু করেছিলাম, তখন এলাকার অনেকেই বাধা সৃষ্টি করেছিল। আজ তারাও এই সাফল্যে আনন্দিত।

ঠাকুরগাঁওয়ের স্বপ্না রানী বলেন, শিরোপা ঘরে আনতে পেরে গর্বিত। দেশের সকলে আমাদের দিকে তাকিয়ে আছে, সামনেও সমর্থন চাই।

সোহাগী কিসকু বলেন, গ্রামের মেয়েরা ফুটবল খেলতে চাইলে তাদের যেন সুযোগ দেওয়া হয়।

এ সময় রংপুর বিভাগীয় ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম, ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মঞ্জুর আহম্মেদ আজাদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাছিমা জামান ববি, ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদার রহমান মিলন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজলী বেগম, স্বপ্নার প্রথম ফুটবল প্রশিক্ষক হারুন অর রশিদসহ রংপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তা এবং ক্রীড়ানুরাগী সংগঠকরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, বিমানবন্দরে বরণের পর ছাদখোলা জিপ গাড়িতে করে সিরাত জাহান স্বপ্নাসহ তিন সাফজয়ী নারী ফুটবলারকে রংপুর মহানগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করানো হয়। এরপর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে তাদেও সংবর্ধনা দেয় জেলা প্রশাসন, জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থা। এরপর সেখান থেকে স্বপ্না তার নিজ গ্রামের বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার সদ্যপুস্করিনীর জয়রাম গ্রামে চলে যায়। সেখানে বিকেলে সদর উপজেলার সদ্য পুস্করনী নয়াপুকুর স্টেডিয়ামে স্বপ্নাকে সংবর্ধনা প্রদানসহ প্রীতি ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হবে।