রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতা হত্যায় বিএনপির ২১৮ জন কারাগারে

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৫৫ পিএম

নোয়াখালীর সুধারামে যুবলীগ নেতা হানিফ হত্যা মামলায় জেলা বিএনপির ২১৮ নেতা-কর্মীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। হাইকোর্ট থেকে নেওয়া চার সপ্তাহের জামিন শেষে নোয়াখালীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শোয়েবউদ্দিন খানের আদালতে মঙ্গলবার আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

নোয়াখালী আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবদুর রহমান দেশ রূপান্তরকে বলেন, নির্বাচনের প্রচারের সময় ১১ ডিসেম্বর বিকেলে এওজবালিয়া ইউনিয়নে শুল্লকিয়ায় ছাত্রদল নেতা রিজভির বাড়িতে ধানের শীষের পক্ষে উঠান বৈঠকে যুবলীগ নেতা হানিফের নেতৃত্বে হামলা চালানো হলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা হানিফ নিহত হন।

তিনি জানান, পরদিন যুবলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে ২২৬ জনকে আসামি করে সুধারাম থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার সব আসামি হাইকোর্ট থেকে নেওয়া চার সপ্তাহের জামিন শেষে মঙ্গলবার ২২২ আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত অ্যাডভোকেট আমির হোসেন, আবু ছালেহ মো. আবদুল্লাহ ও দুই সরকারি কর্মচারী জাকির হোসেন ও ফিরোজের জামিন মঞ্জুর করে বাকিদের কারাগারে পাঠান।

এদের মধ্যে বিএনপি জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদুল ছাড়াও রয়েছেন- সুবর্ণচর উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক এনায়েত উল্যা বাবুল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, জেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান নোমান, নোয়াখালী পৌর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক টপি ও ভিপি পলাশ।

এদিকে হানিফ হত্যার ঘটনায় ২৭ জনকে আসামি করে ১৯ ডিসেম্বর তার বাবা মফিজ উল্যার করা মামলাটি আমলে নিয়ে যুবলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম সুজনের করা মামলার সঙ্গে সংযুক্ত করে তদন্ত করতে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন আদালত।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত