সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘সেদিন রাতে স্ত্রীর সঙ্গে হাতাহাতি হয়েছিল আকাশের’

আপডেট : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:২৫ পিএম

স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুর সঙ্গে আত্মহত্যার আগে চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের হাতাহাতি ঘটনা ঘটেছিল।

পুলিশ হেফাজতে থাকা মিতু প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ তথ্য দিয়েছেন বলে জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মিজানুর রহমান।

মিতু বলেছেন, তার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কারণে মনোমালিন্যের জেরে সেদিন রাতে তাদের হাতাহাতি হয়।

শুক্রবার সকাল ১১টায় দামপাড়া পুলিশ লাইনস্থ সিএমপির সম্মেলন কক্ষে মিজানুর আরও বলেন, চিকিৎসক আকাশের মৃত্যুর প্ররোচনায় তানজিলা হক চৌধুরীকে আটক করা হয়।

মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম উপ-কমিশনার মো. শহীদুল্লাহর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় একটি দল নগরীর নন্দনকানন এলাকায় তার খালাতো ভাইয়ের বাসা থেকে মিতুকে আটক করা হয়।

পুলিশের এই অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জানান, চিকিৎসক আকাশের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো মামলা করা হয়নি। তাদের পরিবারের দেওয়া তথ্য-উপাত্ত এবং ফেসবুকে তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে আকাশের ‘ডায়িং ডিক্লারেশন’ অনুযায়ী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

আত্মহননকারী আকাশ এবং তার স্ত্রীর মোবাইল পুলিশ উদ্ধার করেছে। মিতু বর্তমানে চান্দগাঁও থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে বলে জানান মিজানুর।

মিতু কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়ার বড় ঘোপ কুদ্দুস মিয়ার বাড়ির ইঞ্জিনিয়ার আনিছুল হক চৌধুরীর মেয়ে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার ভোরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশ (৩২) আত্মহত্যা করেন। মৃত্যুর আগে তিনি স্ত্রীর বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ এনে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে যান।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত