রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বিচারপতিকে প্রটোকল না দেওয়ায় সাবেক জেলা জজকে অর্থদণ্ড

আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:০৯ পিএম

গত ২০০৩ সালে ফেনীতে হাইকোর্টের একজন বিচারপতিকে যথাযথ প্রটোকল না দেওয়ায় ফেনীর সাবেক জেলা ও দায়রা জজ ফিরোজ আলমকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ।

এ সংক্রান্ত রুলের শুনানি শেষে বুধবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

এছাড়া উচ্চ আদালতের বিচারকদের সঙ্গে অধস্তনরা কী ধরনের আচরণ করবে সে বিষয়ে চার দফা নির্দেশনা এসেছে হাইকোর্টের রায়ে।

সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা জানান, ২০০৩ সালে হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ আমীরুল ইসলাম ফেনীতে দাপ্তরিক কাজে যান। ওই সময় ফেনীর জেলা ও দায়রা জজ পদে কর্মরত ছিলেন ফিরোজ আলম।

অভিযোগ ওঠে, তিনি হাইকোর্টের ওই বিচারপতিকে যথাযথ প্রটোকল দেননি। এঘটনায় ফিরোজ আলমের বিরুদ্ধে রুল জারি করে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা চায় হাইকোর্ট।

আদালত ফিরোজ আলমকে লিখিতভাবে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দিলেও তিনি মৌখিকভাবে ক্ষমা চান। পাশাপাশি আপিল বিভাগে আবেদন করলে এর কার্যক্রম স্থগিত হয়ে যায়।

দীর্ঘদিন স্থগিত থাকার পর সম্প্রতি প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে গঠিত বেঞ্চ কে নির্দেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় শুনানি নিয়ে আজ এ রায় দেন হাইকোর্ট।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রাফি আহমেদ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত