সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বিয়ের অনুষ্ঠানে নেচে ফেরার পথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

আপডেট : ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৩ পিএম

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচ করে ফেরার পথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ১৯ বছর বয়সী এক গৃহবধূ। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাতে মোল্লাহাট উপজেলার ঘাটবিলা গ্রামের পরিত্যক্ত একটি টিনশেডের ঘরে ওই গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে অন্তত আট যুবক।

এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ইতোমধ্যে পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে। শনিবার ওই গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। এই ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে আটজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। দুপুরে আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন— আরমান শেখ (১৯), রাজিব শেখ (১৯), সোহাগ (১৮), নাসিম মোল্লা (১৯) ও করিম (২২)। আসামিদের বাড়ি মোল্লাহাট উপজেলার সরসপুর ও কাহালপুর গ্রামে।

গৃহবধূর বরাত দিয়ে মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আশরাফুল আলম সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার রাতে পার্শ্ববর্তী ফকিরহাট উপজেলার জয়পুর এলাকা থেকে এই গৃহবধূ ও তার স্বামীকে মোল্লাহাট উপজেলার সরসপুর গ্রামের পূর্ব পরিচিত হৃদয়ের বোনের বিয়েতে নাচ করতে নিয়ে যায়। 

রাত সাড়ে এগারোটার দিকে নাচের অনুষ্ঠান শেষ হলে হৃদয় ও তার বন্ধুরা ওই গৃহবধূ ও তার স্বামীকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার জন্য তাদের মোটরসাইকেলে তোলেন। গৃহবধূর স্বামীকে আগের একটি মোটরসাইকেলে পাঠিয়ে দিয়ে হৃদয় তার বন্ধুদের নিয়ে ঘাটবিলা এলাকায় পৌঁছে মোটরসাইকেল থামিয়ে ওই গৃহবধূকে জোর করে টেনেহিঁচড়ে রাস্তার পাশের একটি পরিত্যক্ত টিনের ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তারা পর্যায়ক্রমে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে ওই গৃহবধূর ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা সেখানে এসে পুলিশে খবর দেয়।

পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূকে উদ্ধার করে এবং অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচ যুবককে গ্রেপ্তার। বাকিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এই ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে আটজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন।

 

 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত