শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সবচেয়ে বেশি দৈর্ঘ্যে ‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০১৮, ০৬:৫১ পিএম

কী ঘটেছে মার্ভেল সুপারহিরোদের ভাগ্যে? থানোসের আবির্ভাবের পর তারা একে একে কোথায় মিলিয়ে গেল? ‘অ্যাভেঞ্জার্স : ইনফিনিটি ওয়ার’-এর পর এসব প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে ভক্তদের মনে। ‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’-এর মাধ্যমে যার জবাব পাওয়া যাবে। ডিএনএ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে জানা যায়, সিনেমাটির বর্তমান দৈর্ঘ্য ৩ ঘণ্টার মতো। তবে এটি এখনো চূড়ান্ত নয়।

ভাই এন্থনি রুশোর সঙ্গে সিনেমাটি পরিচালনা করছেন জো রুশো। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে তিনি জানান, বর্তমানে ‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’-এর দৈর্ঘ্য ৩ ঘণ্টা।

সাথে যোগ করেন, এখনই বলা যাচ্ছে না প্রেক্ষাগৃহে যাওয়া পর্যন্ত সিনেমাটির দৈর্ঘ্য কত হবে। বর্তমানে সম্পাদনার মাঝামাঝি রয়েছে সুপারহিরো সিক্যুয়েলটি। ‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’-এ থাকছে তিন হাজারের বেশি ভিএফএক্স দৃশ্য যার জন্য অনেক সময় ও চিন্তা দরকার। কারিগরি টিম বর্তমানে ভিএফএক্সের শুরুর দিকে রয়েছে।

সব মিলিয়ে মনে হচ্ছে, মার্ভেল সিনেম্যাটিক ইউনিভার্সে সবচেয়ে বড় কিস্তি হতে যাচ্ছে ‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’। শুরুতেই এন্থনি বলেছিলেন, আমি মনে করি এটি ‘অ্যাভেঞ্জার্স থ্রি’র চেয়ে বেশি দৈর্ঘ্যের হবে। তবে এখনই পুরোপুরি বলা অসম্ভব।

‘অ্যাভেঞ্জার্স ফোর’ মুক্তি পাবে ২০১৯ সালের মে মাসে। এর আগে ৮ মার্চ মুক্তি পাবে ‘ক্যাপ্টেন মার্ভেল’। এর মাধ্যমে সিনে পর্দায় প্রথমবার আসতে যাচ্ছে নারী সুপারহিরো চরিত্রটি।

এদিকে দুই সুপারহিরো ফ্যালকন ও উইন্টার সোলজারকে নিয়ে সীমিত সংস্করণের সিরিজ নির্মাণের পরিকল্পনা করেছেন মার্ভেল স্টুডিও। ভ্যারাইটি জানায়, ওই দুটি সিরিজ ২০১৯ সালে ডিজনির নতুন স্ট্রিমিং সার্ভিসে দেখা যাবে। এছাড়া লুকি ও স্কারলেট উইচকে নিয়ে সিরিজের পরিকল্পনা আছে। পাশাপাশি আসতে পারে বেশ কিছু একক সুপারহিরো সিনেমা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত