বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সিনেমাকেও হার মানাল সাক্ষী-আনুশকার বাস্তব জীবন

আপডেট : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:০০ এএম

জীবন কখন কাকে কোথায়, কোন মঞ্চে মিলিয়ে দেয় তা কেউই বলতে পারে না। ভাবাও কঠিন। ভাবতে পারেননি আনুশকা শর্মা আর সাক্ষী ধোনিও। ফলে জীবনের ভুলে যাওয়া এক অধ্যায় যখন তাদের সামনে এসে হাজির হয় তখন নিজেদের জীবনের গল্পে নিজেরাই চমকে গিয়েছিলেন আনুশকা আর সাক্ষী।

ভারতীয় দুই ক্রিকেটারের ঘরনি হয়ে বেশ ভালোভাবেই জীবন কাটাচ্ছেন আনুশকা শর্মা আর সাক্ষী ধোনি। বিরাট কোহলি আর এমএস ধোনি পরস্পর সহকর্মী। এই দুই সহকর্মীর স্ত্রীরা একদিন আড্ডা দিচ্ছিলেন নিজের মতো করে। সেই আড্ডায় তারা আগ্রহী হয়ে পড়েছিলেন একে অপরের অতীতের গল্প জানতে। তাদের সেই গল্পে যে এত টুইস্ট থাকবে তারা ঘুণাক্ষরেও তা ভাবতে পারেননি।

image

বিরাট কোহলির স্ত্রী আনুশকা শর্মা আর মাহেন্দ্র সিং ধোনির স্ত্রী সাক্ষী যে বহু আগে থেকেই একে অপরের চেনা সেটা কেউই জানতেন না। আর যখন জানলেন তখন তারা নিজেরাই অবাক।

আনুশকা শর্মা আর সাক্ষী বেড়ে উঠেছেন একই সঙ্গে, একই এলাকায়। এমনকি একই স্কুলে একই ক্লাসে পড়েছেন তারা। কী অবাক হচ্ছেন! এই রহস্য উদ্‌ঘাটন করে আপনার মতোই অবাক হয়েছেন সাক্ষী-আনুশকাও।

image

জানা যায়, আসামের সেন্ট মেরিজ স্কুলে পড়েছেন তারা। একসঙ্গে কেটেছে তাদের দু’জনের ছোটবেলা। কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় একে অপরকে ছেড়ে পাড়ি দিয়েছেন জীবনের একটা দীর্ঘ সময়। আর সেই সুবাদে বেমালুম ভুলেই গিয়েছিলেন নিজেদের বন্ধুত্বের কথা। তবে ২০১৩ সালে বিষয়টি আবিষ্কার করেন আনুশকা শর্মা। সাক্ষীর সঙ্গে আড্ডা দিতে গিয়ে জানতে পারেন সব। আনুশকা জানিয়েছেন, ‘সাক্ষী ও আমি দুজনেই আসামের ছোট্ট শহরে থাকতাম। সাক্ষী যখন আমায় বলল ও ওখানে থাকত, আমি বলে ফেলি আমিও তো ওখানে থাকতাম। এরপর সেই গল্পের জের ধরে আনুশকা খুঁজে বের করেন তারা শুধু একই এলাকায় নয়, পড়তেন একই স্কুলেও। বাসায় এসে খুঁজে পান সাক্ষীর সঙ্গে নিজের ছবিও। যদিও সেসব ছবিতে তাদের চেনা খুবই কষ্টকর। আর এই রহস্য উদ্‌ঘাটনের পর সেসব ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও শেয়ার করেছেন আনুশকা। টুইটারে প্রকাশ হওয়া মাত্র সেসব ছবি ভাইরালও হয়ে যায়। জীবন যে এভাবে তাদের মিলিয়ে দেবে তা কে ভেবেছিল!

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত