শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

অবসরের পরও কোটি টাকা ব্যয়ে সরকারি গাড়ির সুবিধা নিলেন ‘নেতা’

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮:৪৫ পিএম

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের অবসরপ্রাপ্ত স্টেনো টাইপিস্ট ও সিবিএর প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন মিয়ার দখলে থাকা গাড়ি জব্দ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তিনি অবৈধভাবে ১০ বছর ধরে সরকারি একটি পাজেরো গাড়ি ব্যবহার করছিলেন।

জানা গেছে, ২০১৭ সালে তিনি অবসরে যান। তারপরও তিনি গাড়ি ব্যবহার করে আসছিলেন। এই দীর্ঘ সময় গাড়ি বাবদ তেল ও ড্রাইভারসহ সরকারের ব্যয় হয়েছে প্রায় কোটি টাকার বেশি।

সোমবার রাজধানীর মতিঝিল এলাকা থেকে দুদকের এনফোর্সমেন্টের একটি টিম গাড়িটি উদ্ধার করে। দুদকের সহকারী পরিচালক সালাউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে।

আলাউদ্দিন পিডিবির নকশা ও পরিদর্শন পরিদপ্তরের স্টেনো টাইপিস্ট পদে ছিলেন। আগস্টে তার অবসরোত্তর ছুটির (পিআরএল) সময়সীমাও শেষ হয়েছে।

অভিযান প্রসঙ্গে দুদকের মহাপরিচালক মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী বলেন, একটি অভিযোগের ভিত্তিতে ওই গাড়িটি উদ্ধার করা হয়। গাড়ি উদ্ধারের সময় এর চালক ছাড়া কেউ ছিলেন না। চালকের বক্তব্য রেকর্ড করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গাড়িটি পিডিবির নামে বরাদ্দ থাকলেও ওই কর্মচারী কোনোভাবে ব্যবহার করতে পারেন না। গাড়িটির পেছনে প্রতি মাসে ৪৫০ লিটার তেল ব্যবহার হয়েছে; নয় বছরে তেল বাবদ ৩৫ লাখ টাকার বেশি অর্থ ব্যয় হয়েছে। এ ছাড়া এই সময়ে ৩৭ লাখ টাকা গাড়ির চালকের বেতন বাবদ ব্যয় হয়েছে।

দুদকের আওতাভুক্ত এটি একটি ‘বড় অপরাধ’ হিসেবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘তৃতীয় শ্রেণির একজন কর্মচারীর নামে গাড়িটি কীভাবে বরাদ্দ দেওয়া হলো, এর সঙ্গে পিডিবি বা অন্য কোনো অফিসের যারা জড়িত তা অনুসন্ধানের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে। তখন সেই অনুসন্ধানের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
এ ঘটনায় মামলার করার যথেষ্ট কারণ রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা অনুসন্ধান করব, ওই কর্মচারীর সম্পদও খতিয়ে দেখা হবে। অনুসন্ধানের জন্য গাড়িটি দুদকে আনা হয়েছে।’

অপর দিকে গাড়িচালক আবুল হোসেন বলেন, ওই সময়কার একজন পরিচালকের নির্দেশে গাড়িটি সিবিএ নেতাকে দেওয়া হয়। এরপর থেকে বেশ কয়েকজন পরিচালক আসলেও কেউ সিদ্ধান্ত পাল্টায়নি। গাড়িটি আলাউদ্দিন ব্যক্তিগত কাজে ও মিছিল মিটিংয়ে যাওয়ার জন্য ব্যবহার করতেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত