রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

তৃতীয় শেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষকের সহযোগী আটক

আপডেট : ০৬ মার্চ ২০১৯, ০৯:৩৯ পিএম

সাভারে তৃতীয় শ্রেণি পড়ুয়া এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুটির পরিবারের সদস্যরা থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ধর্ষকের সহযোগীকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার সদর সদর ইউনিয়নের ডগরমোড়া এলাকার আলী হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

আটক মো. মামুন মোল্লা (৩০) ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার বাইরখির গ্রামের বাসিন্দা। মামুন সাভার সদর ইউনিয়নের ডগরমোড়া এলাকার রবিনের বাড়িতে ভাড়া থাকত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

থানা-পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ডগরমোড়া মহল্লার আলী হোসেনের বাড়িতে লোকজন লোকজন না থাকায় ওই বাড়ির ভাড়াটিয়ার তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েকে (১২) একা পেয়ে ধর্ষণ করে বখাটে তরিকুল ইসলাম বাবু (৩২)। এ সময় তাকে সহযোগিতা করে আটক মামুন মোল্লা।

একপর্যায়ে শিশুটির চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে ধর্ষণকারী ও তার সহযোগী দ্রুত পালিয়ে যায়।  

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই ভুক্তভোগী শিশুটির পরিবার সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশের একটি দল বুধবার ভোররাতে ডগরমোড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষকের সহযোগী মামুন মোল্লাকে আটক করলেও ধর্ষণকারী বখাটে তরিকুল ইসলাম বাবু পলাতক থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ.এফ.এম সায়েদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগী শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

এ ছাড়া ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আটক মামুন মোল্লাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানোর পাশাপাশি ধর্ষক বাবুকেও গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত