রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ছাত্রলীগ ছাড়া সব প্যানেলের ডাকসু নির্বাচন বর্জন

আপডেট : ১১ মার্চ ২০১৯, ০১:৪২ পিএম

ভোটের আগেই ব্যালটে সিলমারা এবং ভোটদানে বাধা দেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগ ছাড়া অন্য সবক’টি প্যানেল।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে বাম জোট থেকে সহ-সভাপতি (ভিপি) প্রার্থী লিটন নন্দী এ ঘোষণা দেন। এসময় কয়েকটি প্যানেলের প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে ছাত্রদলও সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেয়।

নতুন তফসিল ঘোষণা করে পুনরায় নির্বাচন দেওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন এবং সংবাদ সম্মেলন শেষে উপাচার্য কার্যালয় ঘেরাও করারও ঘোষণা দেওয়া হয়।

লিটন নন্দী বলেন, “আমরা প্রহসনের এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করছি। অবিলম্বে এই নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার দাবি করছি।”

ভোটে অনিয়মের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, “কুয়েত মৈত্রী হলে ভোট শুরুর আগেই বস্তাভর্তি সিলমারা ব্যালট পাওয়া যায়। রোকেয়া হলে ব্যালট বাক্স উদ্ধার করতে গেলে ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নুরসহ কয়েকজন প্রার্থীর ওপর হামলা করা হয়।”

লিটন নন্দী বলেন, “জিয়া হলে বুথের সামনে অবস্থান নিয়েছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। তারা ভোট দিয়ে এসে ফের লাইনে দাঁড়াচ্ছে। অন্যদের ভোটদানে বাধা দিচ্ছে।”

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রতীক্ষিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন। সোমবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। চলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

সকাল থেকেই ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। তবে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে আগেই ব্যালট বাক্স ভর্তি ও নকল লাইন দাঁড় করিয়ে ভোটদানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ আনে বিরোধী প্যানেলগুলো।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত