বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চট্টগ্রাম টেস্ট জয়ের 'উদ্ভট' আশা বাংলাদেশের

আপডেট : ৩১ মার্চ ২০২৪, ০৮:৫৩ পিএম

টেস্টে এক একটি উইকেট নিতে হাড়ভাঙা পরিশ্রম করেন বোলাররা। সেখানে শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসে মোট সাতটি ক্যাচ ফেলেছেন বাংলাদেশের ফিল্ডাররা। হয়েছে রানআউট হাতছাড়া। বোলারদের কঠোর পরিশ্রমের কথা ভেবে হলেও এসব ক্যাচ নেওয়া উচিত বলে মনে করেন বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ ডেভিড হেম্প।

দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি বলেন, ‘আমরা এটা (ক্যাচ নেওয়ার দুর্বলতা) অস্বীকার করতে পারি না। এটা স্পষ্টতই ঘটছে। আমরা কিছু কাজ করছি। কেউ ক্যাচ মিস করতে চায় না কিন্তু বোলাররা যখন সুযোগ তৈরি করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে, আপনাকে সেই সুযোগগুলো নিতে হবে।’

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট এখনো যথেষ্টই ব্যাটিং–সহায়ক। এমন কন্ডিশনে সেই অর্থে ব্যাটসম্যানদের চ্যালেঞ্জ একটাই—নতুন বল। মাত্র ১৫ ওভার পুরোনো হয়েছে বল, এখনো এটিকে তাই নতুনই বলা যায়। এটাকেই আগামীকাল সকালে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বড় চ্যালেঞ্জ মনে করছেন হেম্প, ‘নতুন বল সব সময় হুমকির। ছেলেরা এ নিয়ে যথেষ্ট অনুশীলন করছে। ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারছি কি? রান করার সুযোগগুলো কি নিতে পারছি? পা সামনে বা পেছনে যাচ্ছে তো? উইকেট অনুযায়ী ব্যাটিং করতে পারছি কি? খেলাটা সব সময়ই বদলাচ্ছে। আমাদের নিজেদের পারফরম্যান্সে সততার সঙ্গে দৃষ্টি দিতে হবে এবং খেলাটাকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে।’

৪৭৬ রানে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশকে খেলতে হবে বড় ইনিংস। এমনটা যদি হয় তাহলে ম্যাচ জেতা সম্ভব বলে মনে করেন হেম্প। বলেন, ‘আমরা এখনও ম্যাচ জেতার আশা করছি। যদিও এটা শুনতে উদ্ভট লাগতে পারে, যখন আপনি ৪৮০ রানে (মূলত ৪৭৬) পিছিয়ে আছেন। এখান থেকে আমাদের কালকে ভালো খেলতে হবে। যদি কালকের দিনটায় দাপট দেখাতে পারি তাহলে...ব্যাটিংয়ের ব্যাপারে আসলে কেউ কিছু জানে না কী হতে পারে সামনে। তবে সবার আগে আমাদের কাল তিন সেশন ভালো ব্যাটিং করতে হবে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত