শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

অরুণাচলের ৩০ স্থানের নতুন নাম দিলো চীন, ক্ষুব্ধ নয়াদিল্লি

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪১ পিএম

ভারতের অরুণাচল প্রদেশের অন্তত ৩০টি স্থানের নতুন নাম দিয়েছে চীন। আগামী ১ মে থেকে এই নামগুলো কার্যকর হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। তবে বেইজিংয়ের নতুন নামকরণের এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে ভারত। একই সঙ্গে অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে দাবি করেছে নয়াদিল্লি।

গত শনিবার এক বিবৃতিতে চীন উল্লেখ করে, রাজ্য পরিষদের স্থানের নাম ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী দক্ষিণ তিব্বতের প্রায় ৩০টি স্থানের মানসম্মত নামকরণ হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রণধীর জয়সওয়াল বলেন, আবিষ্কৃত নাম বাস্তবতা পরিবর্তন করবে না। অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য এবং অবিচ্ছিন্ন অংশ ছিল, আছে এবং থাকবে।

চীনে অরুণাচল প্রদেশকে জাংনান নামে ডাকা হয়। বেইজিংয়ের দাবি, অরুণাচল প্রদেশ দক্ষিণ তিব্বতের একটি অংশ। চীনের এই দাবি অতীতে বহুবার প্রত্যাখ্যান করেছে নয়াদিল্লি। 

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এক বছর আগে প্রায় একইভাবে রাজ্যটির ১১টি স্থানের চীনা নাম দেয় বেইজিং। ওই সময় দুই প্রতিবেশীর মাঝে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়।

২০২২ সালের ডিসেম্বরে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই প্রতিবেশী দেশের সৈন্যরা রাজ্যটির বিতর্কিত সীমান্তে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে। সেই সময় উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের দফায় দফায় বৈঠক আর কূটনৈতিক তৎপরতায় উত্তেজনার অবসান ঘটে। 

এর আগে ২০২০ সালের জুন মাসে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা-নিয়ন্ত্রিত তিব্বত মালভূমিতে ভারতীয় ও চীনা সৈন্যদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষ সীমান্তে চীনা সৈন্যদের সঙ্গে সংঘর্ষে তাদের অন্তত ২০ সৈন্য নিহত হয় বলে জানায়। যদিও চীন ওই সংঘাতের ঘটনায় তাদের কোনো সৈন্য হতাহত হয়েছে কিনা তা প্রকাশ করেনি। তবে ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে চীনের ৪০ জনের বেশি সৈন্য নিহত হয়েছিল বলে জানানো হয়।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত