শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

খতনা করাতে গিয়ে শিশুর লিঙ্গ কেটে ফেললেন হাজাম

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২৩ পিএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ১১ বছর বয়সী এক শিশুর সুন্নতে খতনা করতে গিয়ে গোপনাঙ্গ কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার (১৪ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার রাজিবপুর  ইউনিয়নের উজানচর-নওপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ওই শিশুকে শুরুতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি শিশুর নাম জাহিদ হাসান নির্জন। সে ওই গ্রামের মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে।

সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা গেছে, আহত নির্জনের বাড়িতে কেউ নেই, সবাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে রয়েছেন। এ সময় কথা হয় আহত নির্জনের চাচাতো বোন মোসা. নাদিরা বেগমের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমার ভাইয়ের জীবন নষ্ট করে দিয়েছে। আমরা এর বিচার চাই। আমরা কথিত খতনাকারী বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

খাতনার সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন নির্জনের চাচাতো দুলাভাই শাফায়েত হোসেন। তিনি বলেন, লিঙ্গ কেটে ফেলার পর হাজামকে এর কারণ জানতে চাওয়া হয়। এ সময় হাজাম বলেছিলেন, ‘আমি এটা ঠিক করতে পারব।’

অভিযুক্ত ওই হাজামের নাম আকবর আলী। নির্জনের পরিবার জানিয়েছে, ঢাকা মেডিকেলে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে নির্জনকে।
 
এ প্রসঙ্গে জানতে অভিযুক্ত আকবর আলীর মোবাইলে কল দিলে তার ছেলে হাতেম আলী কল রিসিভ করেন। তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা এখন কিছু বলতে চাই না। রোগী বাড়িতে আসলে কথা বলব।’

তবে এ বিষয়ে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়ছেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ মাজেদুর রহমান। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত