বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নিয়মের ঘোরতর বিরোধী রোহিত শর্মা

আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৪ পিএম

আইপিএলে গত বছর থেকে চালু হয়ে ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নিয়মটি অলরাউন্ডারদের বিকাশের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে এর ঘোর বিরোধী রোহিত শর্মা। এই নিয়মে ম্যাচ চলাকালীন দলগুলো তাদের একাদশের একজন খেলোয়াড়কে বদল করতে পারবে। আর বদলি খেলোয়াড় ব্যাটিং-বোলিং সবই করতে পারবেন। টসের সময়ই দুই দল তাদের খেলোয়াড় তালিকায় একাদশের সঙ্গে চার জন বদলি খেলোয়াড়ের নাম দেয়। আর এই চার জনের মধ্যে থেকে একজনকে ম্যাচ চলাকালীন ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

চলতি আসরে এর প্রভাব খুব বেশি দেখা যাচ্ছে ম্যাচগুলোতে। ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার ব্যবহারের কারণে আরও বিনোদনদায়ক হয়ে উঠেছে আইপিএল। তবে এই নিয়মের পক্ষে নন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাবেক অধিনায়ক রোহিত। তার মতে, ক্রিকেট ১১ জনের খেলা, কিন্তু আইপিএলে সেই জায়গায় ব্যবহার করা হচ্ছে ১২ জন। আর এই কারণে অলরাউন্ডাররা ঠিকমতো পাচ্ছেন না সুযোগ।

ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভন ও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক কিপার-ব্যাটসম্যান অ্যাডাম গিলক্রিস্টের সঙ্গে ‘ক্লাব প্রেইরি ফায়ার’ পডকাস্টে ছিলেন রোহিত। সেখানেই ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে এক রকম এই নিয়মের বিরোধিতাই করলেন ভারতের তারকা এই ব্যাটসম্যান।

ভারতের এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমি মনে করি ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নিয়ম অলরাউন্ডারদের উন্নতিতে ব্যঘাত ঘটাবে। কারণ শেষ পর্যন্ত ক্রিকেটে ১১ জন খেলে, ১২ জন নয়। আমি ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নিয়মের পক্ষে খুব একটা নই। শুধুমাত্র মানুষকে সামান্য বিনোদন দেওয়ার জন্য খেলাটি থেকে অনেক কিছু বের করে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু আপনি যদি সত্যিকারে এর ক্রিকেটীয় দিকটি দেখেন...আমি অনেক উদাহরণ দিতে পারি- ওয়াশিংটন সুন্দর, শিভাম দুবের মতো ছেলেরা বোলিং করতে পারছে না, যা আমাদের (ভারতের) জন্য ভালো নয়।’

চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে চলতি আইপিএলে দুর্দান্ত ব্যাটিং করছেন শিভাম দুবে। আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে তার জায়গা পাওয়া নিয়ে অনেক আলোচনা হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটে। কিন্তু এবারের আইপিএলে এখন পর্যন্ত কোনো বোলিং করেননি পেস বোলিং এই অলরাউন্ডার। যেটা নির্বাচকদের জন্য স্বাভাবিকভাবেই একটা চিন্তার কারণ।

অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর তো সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে এবার ম্যাচ খেলার সুযোগই পেয়েছেন স্রেফ একটি। অলরাউন্ডারদের নিয়ে এমন অবহেলা পছন্দ হচ্ছে না রোহিতের। তাই সরাসরিই বললেন, এই নিয়মের ভক্ত নন তিনি, ‘জানি না, এর কোনো সমাধান কি, তবে সত্যি কথা বলতে আমি এই নিয়মের ভক্ত নই। কারণ, ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নির্বাচন করার জন্য দলে ১২ জন রাখা হয়। আর সেই ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার যেই হোক না কেন, খেলার পরিস্থিতি বুঝে, প্রয়োজন অনুযায়ী এবং পিচ কেমন আচরণ করছে তার উপর নির্ভর করে পরে পরিবর্তনটি করা যায়।’

তিনি যোগ করেন, ‘কোনো দল যদি ভালো ব্যাটিং করে, যদি উইকেট না হারায়, তাহলে আরেকজন বোলারকে যুক্ত করতে পারে দলে, যা ছয় বা সাতজন বোলার ব্যবহারের সুযোগ দেয়। দলে অতিরিক্ত ব্যাটারের প্রয়োজন নেই, কারণ অনেক দলই আসলে ভালো ব্যাটিং করছে, সাত বা আট নম্বর ব্যাটসম্যানকে খুব কমই দেখা যায় ব্যাটিংয়ে আসছে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত