সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

তীব্র দাবদাহে অনলাইন ক্লাসের দাবি জবি শিক্ষার্থীদের

আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৫ পিএম

রাজধানীসহ সারাদেশে বইছে তাপ প্রবাহ। সূর্যের প্রখর তাপ ও তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে শিক্ষার্থীসহ সারা দেশের মানুষ। এই গরমে থেমে নেই জগন্নাথ  বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা। তীব্র গরমে যেন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাস জীবন। দেশে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ক্লাস-পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে আগামীকাল রবিবার। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম। 

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০২১-২২  সেশনের শিক্ষার্থী শেফান বলেন, গরমে আমরা অতিষ্ঠ। বিশেষ করে আমরা যারা ভার্সিটি বাসে যাতায়াত করে ক্লাস করি তাদের অবস্থা আরও খারাপ। আমাদের অবস্থা বিবেচনা করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি।

আইন বিভগের শিক্ষার্থী স্বর্ণা বলেন, ক্লাস পরীক্ষা একেবারে বন্ধ না করে, অনলাইন ক্লাস চালু রাখা হোক। পাশাপাশি পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে। না হলে নতুন করে সেশনজট হবে। ইতিমধ্যে করোনার কারণে বেশ কিছু বিভাগে ৩ মাস থেকে ৬ মাসের সেশনজট রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য সাদেকা হালিম বলেন, তীব্র তাপপ্রবাহের জন্য জনজীবন অতিষ্ঠ, এত গরম মানুষের অবস্থা খারাপ। এই গরমে ইতিমধ্যে সকল স্কুল কলেজ বন্ধের ঘোষণা হয়েছে। এখন আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস পরীক্ষা চলবে কিনা তা ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অনলাইনে ক্লাস নেওয়া গেলেও কিছু পরীক্ষা আছে। সবকিছু গুছিয়ে সিদ্ধান্তটা নিতে হবে। আগামীকাল ১১টায় ক্লাস-পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য একটি সভাও ডেকেছি। সভা থেকে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।’

এদিকে সারা দেশে চলমান তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে সারাদেশের স্কুল-কলেজের পুর্বনির্ধারিত ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তাছাড়া তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজের ক্লাসও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে ইতিমধ্যে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত